আইসিইউ খুঁজতে খুঁজতে “গরিবের ডাক্তার” টাও মারা গেলেন।

আইসিইউ না পেয়ে এবার চট্টগ্রামে মারা গেলেন ‘গরিবের ডাক্তার’ খ্যাত নুরুল হক (৭০)। চট্টগ্রাম নগরীর একাধিক হাসপাতাল ঘুরেও আইসিইউ খালি না পাওয়ায় তাকে ১৭ জুন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) বিকেল ৪টায় মারা যান তিনি।

নুরুল হক হাটহাজারীর ১২ নং চিকনদণ্ডী ইউনিয়নের শাহের পিতার বাড়ির বাসিন্দা।

জানা গেছে, ডা. নুরুল হক হাটহাজারীর আমানবাজার যুগীরহাটে ৪০ বছর ধরে একটি ক্লিনিকে চেম্বার করতেন। সেখানে তিনি গরিব রোগীদের চিকিৎসা দিতেন। আবার কখনও কখনও বাড়ি বাড়ি গিয়েও রোগী দেখতেন। যাদের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো, তাদের কাছ থেকে টাকা নিলেও গরিবদের কাছ থেকে তিনি তেমন টাকা নিতেন না। এজন্য ওই এলাকার লোকজন তাকে ‘গরিবের ডাক্তার’ বলে ডাকতেন।

ডাক্তার মো. নুরুল হকের ছেলে মো. হাসান আবদুল্লাহ বলেন, ‘আমার বাবা দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে মানুষের সেবা করেছেন। কখনও টাকা-পয়সার দিকে তাকাননি। বাবার কাছে রোগীকে সারিয়ে তোলাই ছিল মূখ্য।’

ইউপি সদস্য আহমেদ মোস্তফা আরজু বলেন, ‘ডাক্তার নুরুল হক এলাকার গরিব রোগীদের রাত-বিরাতে সেবা দিতেন। তিনি নিজেকে মানুষের সেবায় উৎসর্গ করেছিলেন। হঠাৎ এমন মানুষের মৃত্যু মেনে নিতে পারছি না।’

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply