আফগানিস্তানে ‘গোলাগুলিতে আমেরিকান, আফগান সৈন্য নিহত’

[ad_1]

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, শনিবার দেশটির পূর্বাঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র ও আফগান বাহিনীর ওপর হামলা হয়েছে এবং তারা ঘটনার বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছেন বলে রাজধানী কাবুল থেকে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

টাইমসের প্রতিবেদনে দুই আফগান কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, গোলাগুলিতে পাঁচ থেকে ছয় আমেরিকান সৈন্য এবং ছয় আফগান সৈন্য নিহত হয়েছে।

সংবাদপত্রটিতে দেওয়া উদ্ধৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের এক সামরিক কর্মকর্তার সেখানে অন্তত ছয় আমেরিকান সৈন্য হতাহত হয়েছে এবং কতোজন নিহত হয়েছে তা না জানিয়ে নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন।

পরিচয় না প্রকাশ করার শর্তে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, প্রাথমিক তথ্যানুযায়ী ওই ঘটনায় বেশ কয়েকজন আমেরিকান হতাহত হয়েছে।

ঘটনাটি যেখানে ঘটেছে সেই নানগারহার প্রদেশের ঊর্ধ্বতন নিরাপত্তা কর্মকর্তা মুবারিজ খাদেম শনিবার রয়টাসর্কে জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও আফগান সৈন্যদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে এবং হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর ভিতরে ছদ্মবেশে থাকা হামলাকারী যারা ‘নীলের ওপরে সবুজ’ হিসেবে পরিচিত, আফগানিস্তানের লড়াইয়ের নিয়মিত ঘটনা হলেও সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এ ধরনের হামলা হ্রাস পেয়েছিল।

শনিবারের ওই ঘটনার বিস্তারিত এখনও বিভ্রান্তিতে ঢাকা পড়ে আছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা বিভাগের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ঘটনাটি আফগান ও বিদেশি সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষের কারণে ঘটেছে না জঙ্গি হামলার কারণে ঘটেছে তা পরিষ্কার নয়।

“আমরা কোনো সম্ভাবনাকেই বাতিল করছি না, কিন্তু এই পর্যায়ে এটিকে অভ্যন্তরীণ হামলা, তালেবান হামলা বা ‘নীলের ওপর সবুজ’ বলছি না আমরা,” পরিচয় না প্রকাশ করার অনুরোধ জানিয়ে বলেন ওই কর্মকর্তা।

আফগানিস্তানে মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল সনি লেগেট জানিয়েছেন, নানগারহারে যুক্তরাষ্ট্র ও আফগান বাহিনী যৌথভাবে একটি অভিযান পরিচালনাকালে সরাসরি গোলাগুলিতে জড়িয়ে পড়েছে।

“আমরা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছি আর পর্যাপ্ত তথ্য পাওয়ার পরই তা জানানো হবে,” বলেন তিনি।

এ ঘটনার বিষয়ে মন্তব্যের জন্য তালেবানের সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে যোগাযোগ করা যায়নি বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

নানগারহারের প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য সোহরাব কাদেরি জানিয়েছেন, শনিবার বিকালে শিরজাদ জেলায় আফগান সেনাবাহিনী ও বিদেশি বহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। 

তিনি জানান, আফগান বাহিনীগুলো গত মাস থেকেই এলাকাটিতে অভিযান পরিচালনা করছিল আর তালেবান হামলা প্রতিহত করার জন্য বিদেশি বাহিনীগুলোও ওই জেলায় ছিল।

“মনে হচ্ছে একটি অভিযানের সময় আফগান বাহিনীর সঙ্গে বিদেশি বাহিনীগুলোর সংঘর্ষ হয়েছে, সম্ভবত সেখানে একটি কৌশলগত ভুল হয়েছে,” বলেন কাদেরি। 



[ad_2]

Source link

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply