এক ঝলকে ভালোবাসার বিশেষ ‘পাঁচফোড়ন’

রামের চরিত্রে প্রভাস ও মহেশ বাবু

মধু মন্টেনার থ্রিডি সিনেমা ‘রামায়ণ’ নিয়ে নতুন খবরে সরগরম বিটাউন। এতে রামের ভূমিকায় দেখা যাবে দক্ষিণ ভারতের সুপারস্টার মহেশ বাবুকে। অথচ খবর ছিল বলিউড সুপারস্টার হৃতিক রোশন অভিনয় করবেন এই চরিত্রে। আর সীতার জন্য নির্মাতাদের প্রথম পছন্দ ছিল দীপিকা পাড়ুকোন। দীপিকাই সীতা হবেন, তবে বদল এসেছে রামের চরিত্রে। তবে হৃতিককে পুরোপুরি বাদ দেননি। রাম থেকে সরিয়ে লঙ্কাপতি রাবণের চরিত্রে হৃতিককে চূড়ান্ত করতে চলেছেন। কারণ, রামের জন্য নির্মাতাদের প্রথম পছন্দ কখনই হৃতিক ছিলেন না। এই চরিত্রের জন্য তারা প্রথমে দক্ষিণের আরেক সুপারস্টার প্রভাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। কিন্তু সময়ের অভাবে এই প্রজেক্ট থেকে সরে প্রভাস যোগ দেন ওম রাউত পরিচালিত ‘আদিপুরুষ’ ছবিতে। এই ছবিও রামায়ণ মহাকাব্যের ওপর নির্মিত। সেখানে রামের ভূমিকাতেই আছেন প্রভাস। তা ছাড়া প্রভাসের এই ছবির বাজেট ‘রামায়ণ’ ছবির চেয়ে আরও বেশি। তাই মধু মন্টেনার কপালে চিন্তার ভাঁজ! কেননা, দুটো ছবিই একই বিষয়ের ওপর। আদিপুরুষের বাজেট বেশি। আর আদিপুরুষ আগে মুক্তি পাবে। তাই মধু মন্টেনা তড়িঘড়ি এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। আর হৃতিককে রাবণের ভূমিকায় এনে সবচেয়ে বড় চমক দিতে চাইছেন। জানা গেছে, মধু মহেশ বাবুকে ছবির চিত্রনাট্য শুনিয়েছেন। এই দক্ষিণী সুপারস্টার খুব পছন্দ করেছেন সেই চিত্রনাট্য। সব মিলিয়ে দুটো ছবি নিয়ে বেশ একটা প্রতিযোগিতা আর যুদ্ধ যুদ্ধ পরিবেশ তৈরি হয়েছে। মহেশ বাবু না প্রভাসÑ পর্দায় রাম হয়ে কে জিতলেন, সেই উত্তর জানিয়ে দেবে সময়।

বিশেষ পাঁচফোড়ন

ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে অসংখ্য ফিকশন নির্মিত হলেও নন-ফিকশন খুব একটা হয়নি। তবে হানিফ সংকেতের ফাগুন অডিও ভিশন প্রতিবারের মতো এবারও   ভালোবাসার বিশেষ ‘পাঁচফোড়ন’ অনুষ্ঠান নির্মাণ করেছে। গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি করে এক দম্পতি। সেখানে দুজনের প্রেম ও বিয়ে। এটাই তাদের একসঙ্গে প্রথম ভালোবাসা দিবস। দুজনই ছুটি নিয়ে ঘুরতে বের হয়, ঘটতে থাকে নানা ঘটনা। ফাঁকে ফাঁকে প্রসঙ্গক্রমে আসতে থাকে গান, নাটক ও রিপোর্টিং। পাঁচফোড়নের প্রতিটি পর্বেই উপস্থাপনার ঢং ভিন্নরকম। নির্দিষ্ট কোনো উপস্থাপক থাকেন না। দেশের তারকা শিল্পীরা উপস্থাপনায় অংশ নেন। এবারের পাঁচফোড়নে নবদম্পতির ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় দুই তারকা সারিকা ও সাঈদ বাবু। গান রয়েছে ৩টি। বিখ্যাত লোকসংগীত ‘পিরিতি কাঁঠালের আঠা’ ভিন্নভাবে পরিবেশন করেছেন জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী পলাশ। দুরবীন ব্যান্ড একটি আঞ্চলিক গান গেয়েছে। জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী প্রতিক হাসান ও ঐশী গেয়েছেন আরেকটি গান। দেশি ফুলের প্রধান উৎস যশোরের গদখালীর পানিসারা গ্রাম এবং সাভারের বিরুলিয়া গ্রাম। গ্রাম দুটির ওপর রয়েছে বিশেষ প্রতিবেদন। সম্রাট শাহজাহানের অমর কীর্তি তাজমহল আর তার প্রেমের গল্প নিয়ে রয়েছে একটি ভিন্নধর্মী প্রতিবেদন। অনুষ্ঠানটি এটিএন বাংলায় প্রচার আজ রাত ১০টা ৪০ মিনিটে।

বিষন্নতার বলি আরও এক তারকা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টিকটক তারকা ড্যাজারিয়া কুইন্ট নয়েস। মাত্র ১৮ বছরের এই তরুণী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন। টিকটকে এই তারকার ১ দশমিক ৪ মিলিয়ন ভক্ত। এই জনপ্রিয়তা কাজে লাগিয়ে ‘ডি বিউটি আউটলেট’ নামে নিজের একটি ব্র্যান্ডও লঞ্চ করেছিলেন,  যেখানে প্রসাধনী থেকে শুরু করে জামাকাপড় বিক্রি শুরু করেন ড্যাজারিয়া। গত ৩১ ডিসেম্বর তার নিজস্ব ব্র্যান্ড সম্পর্কে লিখেছিলেন, ‘আমি গতকাল মাত্র এটি খুলেছি। কিন্তু এই অল্প সময়ে  যে পরিমাণ পণ্যের অর্ডার পেয়েছি, তা নিয়ে আমি সত্যিই খুশি।’ এমন একটি সম্ভাবনাময় প্রাণ বিষন্নতার বলি হয়ে চলে গেল। আত্মহত্যা করার আগে ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লেখেন, ‘এটি আমার  শেষ পোস্ট।’ এত অল্প বয়সেই এই উদ্যোক্তা ও টিকটক তারকার বিষন্নতায় মৃত্যু কোনোভাবেই  মেনে নিতে পারছেন না অনুরাগীরা। ড্যাজারিয়ার বাবা রহিম আলা ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘৮  ফেব্রুয়ারি সকালে ড্যাজারিয়া আমাদের ছেড়ে চলে যায়। তাকে দেবদূতদের সঙ্গে উড়ে যাওয়ার জন্য ডাকা হয়েছিল। সে আমার বন্ধু ছিল। আমি তাকে কবরে শোয়ানোর জন্য প্রস্তুত ছিলাম না। ড্যাজারিয়া খুব হাসিখুশি থাকত। আমি যখন বাড়ি ফিরতাম, তখন সে আমায় বাড়ির সামনের রাস্তায়  দেখেই খুশি হয়ে যেত। আমার এখন একটি কথাই মনে হচ্ছে, ড্যাজারিয়া যদি তার মানসিক অবসাদ নিয়ে আমার সঙ্গে একবার কথা বলত, তাহলেও হয়তো কিছু করতে পারতাম। আমি  তোমার হাত আবার ধরতে চাই ড্যাজারিয়া। এখন আমি যখন বাড়ি ফিরব, আমার জন্য কেউ আর অপেক্ষা করবে না। এখন তোমাকে স্বর্গের পরীদের সঙ্গে উড়ে যেতে দিতেই হবে। শুধু  জেনো, বাবা তোমায় খুব খুব ভালোবাসে।’

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply