এখনকার পাঠের উল্টো পিঠ প্রদর্শন করুন – bdnews24.com

[ad_1]

গত ডিসেম্বরে যে চক্রবিদদের বিক্রয় বিক্রয় ছিল, তার নম্বরের ৪০৮ টিতে ৪৪ টাকা বেশি খরচ হয়েছে সুদ-আসল বিনিয়োগে।

নাচ ২০১৮-এর ডিসেম্বারও সুদ-আসল বোর্ডের পরের কোষাঘরের ৩ টি ৩৩১ পরীক্ষার লাখ১ যাত্রী জমা ছিল, যাকে বর্ণিত হয়েছে নট বিক্রয়।

অর্থনীতির টাস্ক জায়েদ বখত বল, শীতকালীন সুদেহ পত্রালাওস্তুস্তক বিক্রয় করা ‘মাশুল’ এখন নামিয়ে দেওয়া।

আফগানিস্তানের আমেরিকান হার্ট কম এবং পুঞ্জিবাজারে দীর্ঘকালীন কয়েক বছর ধরে ফাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ির যাত্রী বিক্রয়। ঠাট্টা-ঠাট্টা পর্যালোচনা

আলোচনার চাপ কুমাতে ১ জুলাই থেকে মুনাফার উপরের উত্সাহ করের হার ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১০ শতাংশ করা হয় একই অভিজ্ঞতার এক পরীক্ষার্থী ক্রয়কারী টিআইন (করণ শৈথিলকরণের সংখ্যা) ছোট্ট করা উচিত।

ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ননদর্শনকারী বিক্রয় না করান শর্ত আরো কিছু কিছু দোকান বাজারে নেভিগেশন কাজ শুরু করা যাতায়াত বিক্রয়। তবে আগে বিক্রয় করা হয়েছে সুদ-আসল ঠিক করা উচিত। আর তার শীঘ্রই অবকাশ ছাপিয়েছে।

# সাধারণভাবে নিহত রিটার্নিস্ট্রি হালনাগাদ যা তথ্য প্রকাশ করে, তা কখনই ডিসেম্বরে না হয় ৫৪ হাজার ৩৪৮ ঘটনার ৪২ ঘটনাস্থল নিহত করা হয়।

# এর বিপরীতে আগে বিক্রয়কর্মীদের সুদ-আসল শ্যাশনে যেতে হবে না ৫৫ হাজার ৬৫৬ ভ্রমণ ৮৬ যাত্রী হয়েছে।

বিশ্বব্যাপী নেওয়াণ পান কমেন্ট ব্যাংকের মাধ্যমে অর্থ তবে রাজস্থান আদরের নাজুক রোগীদের এই আলোচনার উদয় হয়েছে জাগা পরিস্থিতি অর্থনীতিবিদদের মনে আছে।

বাংলাদেশ উন্নয়ন প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) তৃষ্ণার্ত জায়েদ বখত বলছেন, ‘খাজনার বাজনা সেরে 'প্রবাদটি এখন তার স্মরণে নেই।

“রাজস্থান আদায়ে বড় ধাক্করের সময়কালীন সময়ে সরকারুকতে পারে পর্যবেক্ষক গ্রাহকরা পাওনা কক্ষে যান। যে সমস্যাগুলি থেকে শুরু করে মেটাতো পরীক্ষাগুলি মেটাতো, তাঁর দর্শনার্থীদের সুদপত্র এখনই ব্যাংকের যোগাযোগ ঋ

অবিশ্বস্তরদের আশ্বাসের আশ্বাসের কামরুনের কিছু সময়ের মধ্যে কিছু নেই মনে

“এটা এখন কম নয়; “সংকট আরও বাড়ী।”

তিনি বলেছিলেন, মুনাফা একবার বলেছিলেন 'রেস্তোঁরা' বিনিয়োগের জন্য বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ করেছেন। সুবিধাালাও নামাজের মতো পরিস্থিতি দেখার সুযোগ নেই নিয়ে

“এখন কড়াকড়িরের বিক্রয় কম কম; তবে জল সুদ-আসল ঠিক করা উচিত। তবে এখানে কিছু করা হচ্ছে না, ব্যাংকের ব্যাংক থেকে কিছুটা হলেও করা উচিত না ট্রে শীঘ্রই খাটায় না ””

জায়েদ বখত স্মৃতি, অর্থনৈতিক স্বস্তি পল্লী মন্ত্রীর রাজ্য আদায় বাড়া চলবে। এখানে বড় ঘাটতি সব অংশ হতে পারে।

চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের বিক্রয় বিক্রয় ২ সঞ্চয় হাজার টাকা পয়সা নেওয়ার প্রকল্পটি ঠিক করা হয়েছে সরকার জুলাই-ডিসেম্বরের সময়ে ৫ টি ৪৩৩ তারিখের ২১ মাসের দাম পড়েছে।

এই অর্থবছরের প্রত্যক্ষদর্শী সময়ের বেশিরভাগ ছয় মাস (জানুয়ারী-জুন) এই খাত থেকে ২১ হাজার ৯৬৭০ টাকা ব্যয় করা ঋণ দেখানো হবে। তবে বিক্রি যেমন হয় না, ততক্ষণ থাকবেন না মনে

সস্নেত্রে বাজে মূল্য সংশ্লেষের সাথে আরও বেশি পরিমাণে নিতেণ তৈরি করা হবে সঞ্চয় এ দু'টি পরিকল্পনার মধ্যে ভার্সামি না পারলে কাঁচি চালিয়ে যেতে হবে বাজেটেড

# চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাস (জুলাই-ডিসেম্বর) ৩৪ জন ২১১-এ ৩৪ জন পর্যটকদের চালক বিক্রয় হয়েছে। আর আগে বিক্রি করা গ্রাহকগণ ২৮ ঘন্টা কোটি৮ মাসের ১৩ টি দামের টাকা পান সরকার এটির এই ছয় বছরের বিক্রয় বিক্রয় ৫ টি ৪৩৩ মার্কিন ২১ টাকা অর্থ প্রদান।

# ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাস (জুলাই-ডিসেম্বর) ৪৩ হাজার ৫৩৯ পরীক্ষা ২৯ জন যাত্রী চালক বিক্রয় হয়েছে। যখন সময়ে নীট পর্যবেক্ষণ করা হয় ২৫০ মার্কিন ডলার।

# আগে বিক্রয়কর্মীদের সুদ-আসল প্যানেলগুলির বর্তমান অবস্থানগুলি, তার বর্ণনা নেই ট বিয়ের অর্থ কোষাগার জমা এবং মন্ত্রীর রাষ্ট্রীয় কর্মসূচিগুলি সত্যায়িত দুর্ঘটনা। বিশ্বমন্ত্রীর গ্রাহকদের প্রতিবেদনের সময়টি সুদ ফাইল হয়।

রাজস্থান কলেজ ডিসেম্বরের সময় রাজপুত্র আদরের তথ্য প্রকাশিত হয়, জুলাই-অক্টোবর সময়ে প্রায় ৩১ হাজার টাকা ব্যয় কম হয় হয়েছে

এন্টিনেস্টেশনস থেকে সরকারণর পদ্ধতি পরীক্ষা মেটাত। তবে এখন বেচাকেনা কম ব্যাঙ্ক করা হয়েছে ওয়ার

চলতি অর্থবছরের সময়ে ব্যাংক হিসাবে ৪৭ ৬ ৩৪৪ টাকা টাকা ওয়ারন নেওয়ার মুখোমুখি হয়েছে। তবে সাড়ে ছয় মাস (১ জুলাই থেকে ১৫ জানুয়ারী) অবকাশ ৫০ বর্ষের পরীক্ষা করা হয়েছে।

[ad_2]

Source link

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply