করোনায় ১০০ কোটি মানুষ আক্রান্ত হতে পারে: আইআরসি

[ad_1]

যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক আন্তর্জাতিক রেসকিউ কমিটি (আইআরসি) সতর্ক করে বলেছে যে, করোনা ভাইরাসে বিশ্বব্যাপী ৫০ থেকে ১০০ কোটি মানুষ আক্রান্ত হতে পারেন। আর মারা যেতে পারেন ৩০ লাখ মানুষ।

ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন এবং ইম্পেরিয়াল কলেজ, লন্ডনের মডেল এবং ডেটার ভিত্তিতে আইআরসি এমন মন্তব্য করেছে বলে মঙ্গলবার, ২৮ এপ্রিল বিবিসি তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

আইআরসি বলেছে, ভাইরাসটির বিশ্বব্যাপী বিস্তার কমিয়ে আনতে আর্থিক ও মানবিক সহায়তার প্রয়োজন ছিল। বিশেষ করে আফগানিস্তান ও সিরিয়ার মতো ‘নাজুক দেশ’ গুলোতে বড় প্রাদুর্ভাব এড়াতে এমন ‘জরুরি অর্থায়ন’ দরকার ছিল।

এটি আরো বলেছে যে, রাজনৈতিক সংঘাত-ক্ষতিগ্রস্থ ও অশান্ত কয়েক ডজন দেশেই শুধু ৩০ লাখের বেশি লোক মারা যেতে পারে।

মৃত্যুর এই সংখ্যাকে একটি সতর্কমূলক বার্তা হিসেবে দেখতে আইআরসি অনুরোধ করেছে। আইআরসি প্রধান ডেভিড মিলিবান্ড বলেছেন, ‘এই মহামারীটির পুরো, ধ্বংসাত্মক এবং অপ্রতিরোধ্য থাবা এখনও বিশ্বের সবচেয়ে ভঙ্গুর ও যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশগুলিতে অনুভূত হয়নি।’

এ কারণে তিনি দাতাদেশগুলোকে জরুরিভাবে সামনে থেকে সাহায্যের জন্য তহবিল বরাদ্দের তাগিদ কে মূল কাজ হিসেবে অভিহত করেছেন। সেই সাথে তিনি আরো যুক্ত করেন, ‘মানবিক সহায়তার লক্ষ্যে যে কোন প্রতিবন্ধকতা দূর করতে প্রতিটি সরকারকে অবশ্যই একত্র হয়ে কাজ করতে হবে।’

আইআরসি ধারণা করছে যে, পরিবারের আকার, জনসংখ্যার ঘনত্ব, স্বাস্থ্যসেবার সক্ষমতা এবং আগে থেকে বিদ্যমান সংঘাতের মতো বিষয়গুলো করোনার বড় ধরণের প্রকোপের ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে।

তারা বলছে যে, উন্নয়নশীল বিশ্বের অনেক দেশে সরকারি সংক্রমণের হার বা মৃত্যুর পরিমাণ কম রয়েছে ঠিকই – তবে প্রকৃত সংখ্যা অনেক বেশি বলে মনে করা হচ্ছে।

ডা. ক্যারোলিন সেগুইন, যিনি ডক্টরস উইদাউট বর্ডার্সের হয়ে ইয়েমেনে কাজ করছেন তিনি বলছেন যে ইতোমধ্যে সেখানকার লোকেরা কোভিড ১৯ থেকে মারা যাচ্ছেন। কিন্তু তা হাসপাতালে নয়। তিনি বিবিসিকে বলেছেন, ‘আমরা নিশ্চিত যে স্থানীয় ট্রান্সমিশন চলমান রয়েছে তবে সেখানে পরীক্ষার সক্ষমতা খুব কম।’

আইআরসি সিরিয়া, পাকিস্তান সহ সংঘাতপূর্ণ উন্নয়নশীল ও অনুন্নত দেশগুলোতে করোনার প্রকোপ নিয়ে তাদের উদ্বেগের কথা জানিয়ে দাতা দেশ ও সরকারসমূহকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সাহায্য করার অনুরোধ জানিয়েছে।



[ad_2]

Source link

Leave a Reply