করোনা আতঙ্কের মধ্যেই প্রেমের টানে বাঙালি যুবকের কাছে চীনা তরুণী

[ad_1]

চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করেছে। এ পর্যন্ত ভাইরাসটিতে ৬৩৬ জন নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছেন ৩১ হাজার ১৬১ জন। এই ভাইরাসে গোটা বিশ্ব এখন আতঙ্কিত, তবে এই আতঙ্কের মধ্যেই এক চীনা তরুণী প্রেমের টানে ছুটে গেলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুর জেলায় এক তরুণের কাছে। বিয়েও করেছেন তারা।

বর কাঁথির পশ্চিম পারুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা পিন্টু। আর কনে চীনের গোয়াং প্রদেশের বাসিন্দা অ্যাঞ্জেল।

জানা যায়, সাত বছর আগে ছোটো মামার হাত ধরে চীনে কাপড়ের ব্যবসা করতে গিয়েছিল পিন্টু। সেখানেই পরিচয় অ্যাঞ্জেলের সঙ্গে। শেষমেশ চার হাত এক করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় দুই পরিবার। সেই মতো এক মাস আগে বিয়ের দিনক্ষণ পাকা হয়।

চলতি মাসের ৪ তারিখ বিয়ের দিন ঠিক হয়। স্থির হয়, হিন্দু মতেই হবে বিয়ে। সেই মতো সব ঠিকঠাক চলছিল। কিন্তু হঠাৎই মাঝখান থেকে বাগড়া দেয় প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। দিন ১০-১২ আগে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দিতেই কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ে দুই পরিবারের।

শেষে ঠিক হয়, নির্দিষ্ট দিনেই হবে বিয়ে। কোনো মতে পাত্র ও পাত্রী ভিসা নিয়ে ভারতে চলে আসেন। কিন্তু আটকে পড়ে কনের পরিবার। সেই পরিস্থিতির মধ্যেই মঙ্গলবার চার হাত এক হলো অ্যাঞ্জেল ও পিন্টুর।

মঙ্গলবার পিন্টুর কাঁথি-১ ব্লকের পশ্চিম পারুলিয়ার বাড়িতে হয় বিয়ে। বুধবার ছিল বৌভাত। এঞ্জেল সেজেছেন লাল শাড়ি, চেলি, গয়নায়। আর চীন থেকে নবদম্পতিকে মোবাইলের ভিডিও কলে আশীর্বাদ করলেন এঞ্জেলের পরিজনেরা।



[ad_2]

Source link

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply