কর্ণেল ফোরকান এখন কক্সবাজারে অনেকের গলার কাঁটা!

কর্ণেল ফোরকান এখন কক্সবাজারে অনেকের গলার কাঁটা!

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে.কর্ণেল(অবঃ)জনাব ফোরকান আহমদের জন্য সমবেদনা।
মনের দুঃখে তিনি গতকাল সোমবার বলেছেন,কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়ক নির্মাণের দায়িত্ব নিয়ে তিনি ভুল করেছেন।
হ্যাঁ, তিনি তো ভুল করেছেনই। কারণ এই কক্সবাজারের মানুষ সম্ভবতঃ কথার ফুলঝুরি ছড়ানো চাপাবাজকে পছন্দ করে। অর্থ লোপাটকারী মিষ্টভাষী প্রতারককে পছন্দ করে। আর এখানকার মানুষ, যিনি ক্ষমতার দাপট দেখাতে পারেন, যার উগ্রপন্থী সমর্থক-বাহিনী আছে,এমন ব্যক্তিকে সমীহ করে।
ফোরকান সাহেবের সমস্যাটা ওখানেই।
তিনি সেনাবাহিনী থেকে আসা মানুষ। শৃংখলায় অভ্যস্ত। স্বল্পকথা এবং বেশী কাজে অভ্যস্ত। অর্থকড়ির নয়ছয় তার চিন্তার বাইরে। আর মানুষকে মিথ্যা আশ্বাস দেয়া, কিংবা কথার ফুলঝুরিতে অভ্যস্ত নন। তিনি কোনো বাহিনী পোষেন না।
ফলে কক্সবাজারে তাকে নিয়ে এখন প্রায় সর্বমহলে অস্বস্তি।
সোমবার তিনি বলেছেন, কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কটি এখন তার গলার কাঁটার মতো হয়েছে।
আদতে,কর্ণেল ফোরকান এখন কক্সবাজারে অনেকের গলার কাঁটা হয়েছেন!………..
তার বিরুদ্ধে সংঘবদ্ধ প্রচারণা শুরু হয়েছে। তো ফোরকান সাহেব যদি কউক ছেড়ে দেন,কক্সবাজার কি বেহেশত হয়ে যাবে?
তিনি যদি প্রধান সড়কটা সওজকে ফিরিয়ে দেন,শহরের নালা-নর্দমাগুলো বানানোর কাজ পৌরসভাকে ফিরিয়ে দেন,তবে কি কক্সবাজার, সুইজারল্যান্ডের কোনো শহর হয়ে যাবে?
বছর দুয়েক আগ পর্যন্ত,এতো বছর ধরে তো প্রধান সড়কটি সওজর অধীনে ছিলো। নালা-নর্দমাগুলো বানানোর কাজ পৌরসভার অধীনে ছিলো।
কক্সবাজার কি তখন সুইজারল্যান্ডের কোনো শহরের মতো ছিলো?

লেখক পরিচিতি

মইনুল হাসান পলাশ

(সাংবাদিক ও শিক্ষক)

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply