চট্টগ্রামে গম ও চাল বোঝাই জাহাজ ডুবি : ১৩ নাবিক নিখোঁজ

ফাইল ছবি।

চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙ্গর থেকে পণ্য নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার সময় পৃথক দুর্ঘটনায় কবলিত হয়ে চিনি ও গম বোঝাই দুটি লাইটার জাহাজ ডুবে গেছে।  এতে একটি জাহাজের ১৩ নাবিক নিখোঁজ রয়েছে।

বিরূপ আবহাওয়ার কারণে সাগরে উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে আজ শনিবার (১৫ আগস্ট) সকালে গম বোঝাই জাহাজ এমভি আখতার বানু-১ ও চিনি বোঝাই এমভি সিটি-১৪ নামে দুটি জাহাজ ডুবে যায় বলে সংশ্লিষ্টরা জানায়।

জানাযায়, শনিবার সকাল ৮টার দিকে বন্দরের বহিনোঙ্গরের মাদার ভেসেল থেকে দুই হাজার টন আমদানিকৃত গম অনলোড করে ঢাকায় যাওয়ার পথে আবুল খায়ের গ্রুপের গমবাহী জাহাজ এমভি আখতার বানু-১ নামে লাইটার জাহাজটি সাগরের মাঝখানে ঢেউয়ের মধ্যে নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পেরে উল্টে গিয়ে ডুবে যায়। এতে জাহাজটির ১৩ নাবিক নিখোঁজ রয়েছে।

শনিবার রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিখোঁজ নাবিকদের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

ডুবে যাওয়া এমভি আখতার বানু-১ জাহাজের শিপিং এজেন্ট ‘লিটমন্ড শিপিং’-এর অপারেশন ম্যানেজার জাহিদ হোসেন বলেন, চট্টগ্রামের পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত থেকে প্রায় ৪০ নটিক্যাল মাইল দূরে হাতিয়া এলাকায় আমাদের একটি জাহাজ ডুবে ১৩ নাবিক নিখোঁজ রয়েছে। জাহাজটিতে দুই হাজার টন আমদানিকৃত গম রয়েছে। ‘সকাল থেকেই আমরা চেষ্টা করছি নাবিকদের খোঁজ নিতে। জাহাজের সার্ভেয়ার ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত নাবিকদের খোঁজ মিলেনি। নিখোঁজ নাবিকদের উদ্ধারে কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনীর সদস্যরা অভিযান পরিচালনা করছেন।

কোস্টগার্ডের পাবলিক রিলেশন বিভাগ জানায়, ঘটনাস্থলে একটি টিম যাওয়ার চেষ্টা করেও ফেরত আসে। সাগর উত্তাল ও প্রচণ্ড ঢেউ থাকায় ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পারেনি।

এদিকে একই সময়ে চট্টগ্রাম বন্দর বহিনোঙ্গর থেকে দুই হাজার টন অপরিশোধিত চিনি নিয়ে রওনা দেওয়া একটি লাইটার জাহাজ হাতিয়ার ভাসানচরের কাছে বঙ্গোপসাগরে ডুবে গেছে।  শনিবার সকাল ৯টার দিকে এমভি সিটি-১৪ ডুবে যাওয়ার ঘটনায় জাহাজের ১২ জন ক্রুকেই উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে অপর একটি লাইটার জাহাজ।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) সূত্র জানায়, সিটি গ্রুপের ওই জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে দুই হাজার টন আমদানিকৃত চিনি নিয়ে নারায়ণগঞ্জের রূপসীর দিকে যাচ্ছিল।

বিআইডব্লিউটিএ এর উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম জানান, সমুদ্র উত্তাল থাকায় জাহাজে পানি ঢুকে যায় এবং এতে জাহাজটি একদিকে হেলে পড়ে। ভোর পাঁচটার দিকে হাতিয়া চ্যানেলের প্রবেশের সময় ভাসানচরের কাছাকাছি এলে জাহাজটি ডুবে যেতে থাকে।

সে সময় ওই এলাকা দিয়ে যাওয়া অপর একটি লাইটার জাহাজ রূপসী-১ ডুবন্ত জাহাজটির কাছে যায় এবং সেটির ১২ জন ক্রুকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

জাহাজের মাস্টার ডুবে যাওয়া জাহজটিকে ঠেঙ্গারচরের তীরবর্তী এলাকার দিকে নেওয়ার চেষ্টা করে। এমভি সিটি-১৪ এর মালিকপক্ষ জাহাজটিকে ডুবে যাওয়া থেকে রক্ষা করতে একটি বার্তাও পাঠায় বলে জানান মোহাম্মদ সেলিম।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

One Response

Leave a Reply