চন্দ্রিমা উদ্যানে পুলিশ- বিএনপি সংঘর্ষ

রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়াউর রহমানের সমাধিস্থলে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় অন্তত ২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) সকাল ১০টার পর এ সংঘর্ষ শুরু হয়। পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়তে দেখা গেছে বিএনপি নেতাকর্মীদের। জবাবে টিয়ারশেল ছুড়ে পুলিশ।

জানা যায়, ঢাকা মহানগর উত্তর দক্ষিণ বিএনপির নবগঠিত কমিটির নেতাকর্মীরা বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা জানানোর কর্মসূচি ছিল।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান বলেন, সম্পূর্ণ বিনা উস্কানিতে পুলিশ আমাদের ওপর টিয়ারশেল নিক্ষেপ ও গুলি চালিয়েছে। আমরা ঘৃণা জানাই। অবিলম্বে এই অবৈধ সরকারের পদত্যাগ দাবি করেছি। ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে কর্মসূচিতে আসতে নেতাকর্মীদের বাধা দেয়া হয়েছে। আমরা জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা না করে ঘরে ফিরব না।

ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালামের ব্যক্তিগত সহকারী শওকত আজিজ গণমাধ্যমকে বলেন, পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচিতে অংশ নিতে নেতাকর্মীরা মাজার প্রাঙ্গণে আসলে পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় বাধা সৃষ্টি করে। একপর্যায়ে তারা মাজারে উপস্থিত নেতাকর্মীদের কোনো প্রকার বিনা উস্কানিতে লাঠিচার্জ করে। তারপরে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে আমাদের অন্তত ২০ জন নেতাকর্মী আহত হন।

ডিএমপির শেরেবাংলা নগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানে আলম মুন্সি বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত আছি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছি। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply