চীনের মহড়ার মধ্যেই দক্ষিণ চীন সাগরে যাচ্ছে মার্কিন রণতরি

দক্ষিণ চীন সাগরে সামরিক মহড়া চালাচ্ছে চীন। এর মধ্যেই সেখানে দুটি রণতরি পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। আণবিক শক্তি চালিত এই দু’টি রণতরি পাঠানোয় চাপে পড়তে পারে বেইজিং। যুক্তরাষ্ট্র চীনের এই মহড়ার সমালোচনা করেছে। তবে চীন সেই সমালোচনাকে পাত্তা দেয়নি। খবর সিএনএনের।

‘ইউএসএস নিমিত্জ’ এবং ‘ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যান’ নামের রণতরী দু’টি দক্ষিণ চীন সাগরের পথে আছে। গতকাল পর্যন্ত এগুলো তাইওয়ান ও ফিলিপাইনের লুঝন দ্বীপের লুঝন প্রণালীতে ছিল। একটি বিমানবাহী রণতরীর সঙ্গে থাকে সাবমেরিন, ফ্রিগেট, ডেস্ট্রয়ারের মতো বেশ কয়েকটি রণতরী। এগুলোকে মিলিয়ে বলা হয় ‘স্ট্রাইক গ্রুপ’। আনবিক শক্তি চালিত হওয়ায় এগুলো অনির্দিষ্টকালের জন্য সাগরে থাকতে সক্ষম।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে ‘ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যান’ এর স্ট্রাইক গ্রুপের কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল জর্জ এম উইকফ বলেন, আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে মিত্রদের বুঝিয়ে দেওয়া যে আমরা আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা নষ্ট হতে দেব না। এই অঞ্চলে শান্তি বজায় রাখাই আমাদের উদ্দেশ্য। দক্ষিণ চীন সাগরের প্রায় ৯০ শতাংশ মালিকানা দাবি করে চীন। এ নিয়ে জাপান, ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইনসহ কয়েকটি দেশের সঙ্গে বিরোধ আছে চীনের। এই সাগর দিয়ে বছরে তিন ট্রিলিয়ন ডলারের বাণিজ্য হয়।

  • ইত্তেফাক সংবাদ
Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply