জন্মদাতা পিতাকে মারধরের ঘটনায় বদরমোকাম জামে মসজিদের কোষাধ্যক্ষ হেলাল শ্রীঘরে

মো: আব্দুল গফুর :

কক্সবাজার শহরের বদর মোকাম এলাকার মৌলভি আলহাজ আতিকুর রহমান পুত্র হেলাল উদ্দিনকে (৩৮)গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পিতাকে মারধর করার অপরাধে বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে শহরের বদর মোকাম নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, হেলাল উদ্দিন প্রথম প্রথম পিতাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতো। পরে সম্পত্তির লোভে সে এত বেশী বেপরোয়া হয়ে গেছে যে তার ভয়ে নিজ বাড়িতে থাকার সাহসও করত না মৌলভি আলহাজ্ব আতিকুর রহমানের পরিবার। নিজ স্ত্রী এবং অন্যান্য সন্তানদের নিয়ে তিনি বাধ্য হয়ে ভাড়া বাসায় থাকতে বাধ্য হন।
হেলাল উদ্দিনের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে গেল ২৫ অক্টোবর আতিকুর রহমান বাদী হয়ে মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের কারেন। মামলায় তাকে একমাত্র আসামী করা হয়।
গতকাল বৃহস্পতিার দুপুরে আতিকুর রহমান বদর মোকাম এলাকায় নিজ বাসায় গেলে তারই পুত্র হেলাল উদ্দিন বৃদ্ধ বাবাকে একটি কক্ষে বেধে রেখে নির্যাতন চালায়। এমন খবর শুনে তার অন্যান্য সন্তানরা বদর মোকাম এলাকায় গেলে তাদের উপরও হামলা চালায় হেলাল উদ্দিন। এ ঘটনায় বৃদ্ধ পিতা আতিকুর রহমান সহ তার ছেলে এবং মেয়েরা গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এ ঘটনায় পুলিশ খবর পেয়ে নিজ বাসা থেকে হেলাল উদ্দিন কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। থানায় আনার পর থেকে হেলালের পালিত সন্ত্রাসীরা বৃদ্ধ আতিকুর রহমানের পরিবারকে হুমকি দিচ্ছে। বর্তমানে সন্ত্রাসী ছেলের পালিত সন্ত্রাসীদের ভয়ে তারা অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছে। এই ব্যাপারে বৃদ্ধ মৌলভী আতিকুর রহমান জানান, তার ছেলে এতটা বেপরোয়া যে, নিজের পিতার গায়ে হাত তুলতে সে কার্পণ্য দ করেনি। নিজ জন্মদাতা পিতাকে মারধরের ঘটনায় হতবাক এলাকার সাধারন মানুষ। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকার এক প্রবীন ব্যক্তি জানান, এলাকার একজন ক্ষমতাধর বক্তির আশ্রয়-পশ্রয়ে হেলাল উদ্দিন এ ধরনের কাজ করতে সাহস পাচ্ছে।
আতিকুর রহমানের বড় সন্তান মিজানুর রহমান জানান, হামলায় আমিও আহত হয়েছি। বাবাকে মারধরের ঘটনায় আমরা এতটা হতবাক হয়েছি যে, যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না। আমরা বৃদ্ধ বাবার উপর হামলাকারী হেলাল উদ্দিনের উপযুক্ত শাস্তি দাবি করছি।
এই বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন জানান, আমরা হামলাকারীকে গ্রেফতার করেছি। তার বিরুদ্ধে যথাযথ আইনে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।
এদিকে হামলায় আহত মৌলভি আলহাজ্ব আতিকুর রহমানের পরিবার এক প্রকার আতংকে দিন পার করছে। ভবিষ্যতে এমন হামলা যাতে না হয় সে জন্য তিনি প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply