জুয়া এবং মাদক থেকে মুক্তি কি পাবে না পশ্চিম সোনার পাড়ার জনগণ?

মাদক এবং জুয়ার রাজধানী হিসেবে খ্যাতি লাভ করেছে এনেক আগে থেকেই জালিয়া পালং ইউনিয়নের ০৩ নাম্বার ওয়ার্ডের পশ্চিম সোনার পাড়া! প্রকাশ্যে দিনে কিংবা রাত্রে যেখানে খেলতে বসে অনেক জুয়াটি! বড়দের দেখাদেখি ছোট বাচ্চারাও মেতে উঠেছে এসব সামাজিক অপরাধমূলক কাজে। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে স্কুল কলেজ সব বন্ধ ফলে ব্যহত হচ্ছে তাদের পড়াশোনা! যার ফলে বেশীরভাগ ছাত্ররা জড়িয়ে পড়ছে বৃদ্ধি পেয়েছে এইকাজে!

সম্প্রতি, Bangladesh Premier League (BPL) Indian Premier League (IPL) / বিশ্বকাপের সিজনে এর প্রাদুর্ভাব বাড়ে বহুগুণে। জানা গেছে আইপিএলের প্রতিটি ম্যাচেই বাজি ধরে কেউ পাচ্ছে আর কেউ হারাচ্ছে টাকা, মোবাইলসহ অনেককিছু। রাতারাতি মালিক হয়ে যাচ্ছে অনেক টাকার।

এ সম্পর্কে ইসলাম কি বলে?
আব্দুল্লাহ ইবনে আমর (রা.) থেকে বর্ণিত রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেন, ‘পিতা-মাতার অবাধ্য সন্তান, জুয়ায় অংশগ্রহণকারী, খোঁটাদাতা ও মদ্যপায়ী জান্নাতে প্রবেশ করতে পারবে না। (দারেমি, হাদিস নম্বর ৩৬৫৬) কিছু লোকের কাছে মনে হতে পারে জুয়া একটি লাভজনক ব্যবসা কিন্তু এর সামান্য কিছু লাভ থাকলেও ক্ষতির পরিমাণ তার চেয়ে বহুগুণে বেশি। যেমন- সূরা বাকারার ২১৯ নম্বর আয়াতে এসেছে, ‘হে মুহাম্মাদ! তারা আপনাকে মদ এবং জুয়া সম্পর্কে জিজ্ঞেস করে। আপনি বলে দিন, এ দুটোর মধ্যে রয়েছে মহাপাপ। আর এতে মানুষের জন্য সামান্য কিছু উপকারিতাও রয়েছে। তবে এগুলোতে উপকারিতা অপেক্ষা ক্ষতির পরিমাণ অনেক বেশি।’
আল্লাহ পাক বলেছেন এই দুইটাই মহাপাপ, তাহলে কেনো আমরা এসমস্ত কাজে লিপ্ত থাকবো?

উক্ত গ্রামে যে বা যারা উক্ত কর্মের সাথে সংশ্লিষ্ট তাদের অনেকের সাথে কথা বললে তারা বলে: আমরা নিজের টাকা দিয়ে খেলতেছি তুমি বলার কে? নিজের টাকা আছে বলে কি কেউ প্রকাশ্যে মাদক সেবন করতে পারবে? জুয়া খেলতে পারবে?
এ সম্পর্কে সংবিধান কি বলে?
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের
সংবিধান এর ১৮(১) অনুচ্ছেদে বলা আছে, ‘জনগণের পুষ্টির স্তর-উন্নয়ন ও জনস্বাস্থ্যের উন্নতি সাধনকে রাষ্ট্র অন্যতম প্রাথমিক কর্তব্য বলিয়া গণ্য করিবেন এবং বিশেষত আরোগ্যের প্রয়োজন কিংবা আইনের দ্বারা নির্দিষ্ট অন্যবিধ প্রয়োজন ব্যতীত মদ্য ও অন্যান্য মাদক পানীয় এবং স্বাস্থ্যহানিকর ভেষজের ব্যবহার নিষিদ্ধকরণের জন্য রাষ্ট্র কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন।’ ১৮ অনুচ্ছেদের ২ উপদফা বলেছে, ‘গণিকাবৃত্তি ও জুয়াখেলা নিরোধের জন্য রাষ্ট্র কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন।’

চলুন আমরা সচেতন সমাজ প্রতিবাদ করি,
জুয়ামুক্ত, মাদকমুক্ত সমাজ গড়ি…!

এলাকাবাসীর পক্ষে,

মো: আয়াছুর রহমান আজিজ

শিক্ষার্থী
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply