টেকনাফে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩

প্রথম আলো:

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গাসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে বাহারছড়া শামলাপুর ঢালাই এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনাটি ঘটে।
পুলিশের দাবি, নিহতেরা হত্যা, অস্ত্র ও মাদক মামলার আসামি। নিহতেরা হলেন, মো. জামিল (২০), আসমত উল্লাহ (২৯) ও মো. রফিক (২৪)। তাঁদের মধ্যে জামিল ও আসমত উল্লাহ উখিয়া বালুখালি রোহিঙ্গা শিবিরের বাসিন্দা। রফিকের বাড়ি বাহারছড়া শামলাপুরে।
টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ ঘটনাটি নিশ্চিত করেন।
প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, পলাতক আসামিদের আটক করার জন্য বাহারছড়ার নতুন পাড়া এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় জামিল, আসমত ও রফিককে আটক করা হয়। পরে স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তাঁদের নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। পালিয়ে যাওয়ার সময় তিনজনই গুলিবিদ্ধ হন। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দেশীয় তিনটি অস্ত্র (এলজি), ছয় রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৮ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করেছে। আহত তিনজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠান।
ওসি বলেন, হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। তাঁদের মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
গত বছরের ৪ মে থেকে সারা দেশে মাদকবিরোধী অভিযান শুরুর পর থেকে র্যাব, পুলিশ, বিজিবি এবং ইয়াবা ব্যবসায়ীদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কক্সবাজার জেলায় ২ নারীসহ ১৬১ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে এক নারীসহ ৩৭ জন রোহিঙ্গা নাগরিক।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply