ঢাল তলোয়ার বিহীন অতন্দ্র প্রহরী

আজ তারা স্বামী স্ত্রী পরিচয়ে এসেছেন। প্রচন্ডরকম আত্মবিশ্বাসী। স্বামী তো ভোটার আইডি কার্ডধারী। কাবিন নামা সহ। আমার যেন কেমন কেমন লাগলো??? কিন্তু প্রশ্ন করতেই তাদের চটাংচটাং উত্তরে আমি ভ্যাবাচ্যাকা খেলাম। ছেড়ে দেব দেব ভাব কিন্তু আমার সন্দেহপ্রবণ মন ভেতরে ভেতরে খচখচ করছে। পাক্কা ৪ ঘন্টা ঘ্যাচড় ঘ্যাচড় ক্যাচর ম্যাচড় করে জানতে পারলাম মেয়ে বালুখালী ক্যাম্প এ ১০ নম্বর ব্লকের বাসিন্দা। বছর দুই আগে মায়ানমার থেকে আগত। 

অবশেষে, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে উভয়কেই মানব শোধনাগারে প্রেরণ। আজ কেন যেন নবাব সিরাজ উদ দৌলাকে মনে পড়লো। বুঝলাম, কালের আবর্তে মীর জাফরদের জন্ম হয় শুধু তাদের নামের পরিবর্তন হয়। আজ দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে এই দেশী সহযোগীরাই সেই মীরজাফরদের প্রেতাত্মা। 

এই প্রজন্মের ছেলেরা দেশ স্বাধীন করে নি। রেডিমেড দেশ পেয়েছেতো তাই স্বাধীনতার স্বাদ কি তা অনুধাবন করতে পারে না। কামনা করি তাদের সুবোধ জাগুক, জাগুক স্বদেশী জাতীয়তাবাদ বোধ ।

কপিরাইটঃ আবু নাইমের ফেইসবুক ওয়াল থেকে, সহকারী পরিচালক, কক্সবাজার পার্সপোর্ট অফিস।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply