মহেশখালীতে পাহাড় কাটার দায়ে রিয়ানকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

সিবিএল২৪ প্রতিনিধি, মহেশখালীঃ

কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার ছোট মহেশখালীর দক্ষিণ কুল, গোরকঘাটায় অবৈধভাবে পাহাড়ের মাটি কাঁটার সময় মহেশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ চৌধুরীর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করে পাহাড় কাটার দায়ে রিয়ানুর ইসলাম নামে এক ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। গতকাল ২০ জানুয়ারি বুধবার বিকালে ড্রেজার দিয়ে পাহাড়ের মাটি কাটার সংবাদ পেয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় পাহাড়ের মাটি সরবরাহের দায়ে ডাম্পার জব্দ করা হয়। পরে জব্দকৃত ডাম্পার মুচলেকা দিয়ে স্থানীয় কয়েক জনের কাছে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়।

এবিষয়ে মহেশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার( ভূমি) খোরশেদ চৌধুরী জানান, ঘটনাস্থল কাউকে পাই নি, মুচলেকা দিয়ে মুন্না ও রাহমত উল্লাহ নামে দুই ব্যক্তিকে জব্দকৃত ডাম্পার ছেড়ে দেওয়া হয়েছে, মুলত বালু তোলার ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটি কাটার সংবাদ পেয়ে অভিযান চালায়। তাদের ধরতে না পেরে মেশিনারিতে বালু ও পানি দিয়ে নষ্ট করার চেষ্টা করা হয়েছে। এদিকে ছোট মহেশখালীতে পাহাড় খেকোদের পাহাড় কাটা থামছে না। কয়েকজন পাহাড় খেকো ক্ষমতাশীন দলের প্রভাব কাটিয়ে নির্বিচারে চালিয়ে যাচ্ছে অবৈধ ব্যবসা। স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের প্রভাব দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে পাহাড় কেটে আসছিল রিয়ান সিকদার ও তার সহদোরেরা।

অন্যদিকে পাহাড় খেকোদের বিরুদ্ধে মহেশখালী উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক বারাবার অভিযান চালানোর পরেও থামছে না পাহাড় কাটা। এর আগেও কয়েকজন পাহাড় খেকোর বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে পাহাড়ের মাটি কাটার সময় ডাম্পার জব্দ করে জরিমানা করা হলেও কোন অবস্থায় বন্ধ হচ্ছে না এসব কর্মকান্ড। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন স্থানীয় বাসিন্দ জানান, জব্দকৃত ডাম্পার গুলো রিয়ান সিকদারে পরিবারের । এর আগেও তার পরিবারের ডাম্পার গুলো জব্দ করে জরিমানা করা হয়। তারা মুলত পাহাড় কাটার ডাম্পার গুলো ব্যবহার করে। এর আগেও অন্যদিকে পাহাড় কাটার সময় উপজেলা প্রশাসনের অভিযানে জব্দকৃত ডাম্পার গুলো মুচলেকা দিয়ে বারবার ছেড়ে দেওয়ায় পাহাড়ের মাটি কাটা থামছে না বলে জানান সচেতমহল মহল। তারাও আরো দাবি করে বলেন উপজেলা প্রশাসনকে পাহাড় খেকোদের বিরুদ্ধে আরো কঠোর ভূমিকা পালন করতে হবে তাহলেই পাহাড় গুলো রক্ষা পাবে।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply