পেকুয়ায় পাউবোর স্লুইচ গেইট বন্ধ করে দিয়ে জনদূর্ভোগ সৃষ্টির পাঁয়তারা!

এম রায়হান চৌধুরী, এটিএম নিউজঃ
কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) এর ৬৪/২বি পোল্ডারের একটি স্লুইচ গেইট বন্ধ করে দিয়ে জন দূর্ভোগ সৃষ্টি করেছে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালীরা। এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে রাজাখালী ইউনিয়নের নতুন ঘোনা গ্রামের বাসিন্দা ও সাবেক ইউপি সদস্য হোছাইন শহীদ সাইফুল্লাহ মেম্বার বাদী পাউবোর বান্দরবান জোনের নির্বাহীপ্রকৌশলী ও পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দফতরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এরপরেও প্রভাবশালীরা কোন ধরনের তোয়াক্কা না করে পাউবোর স্লুইচ গেইটটি দখলপূর্বক পানি চলাচল আটকে দিয়েছে। এর ফলে রাজাখালী ইউনিয়নের নতুনঘোনাসহ আশেপাশে প্রায় দেড় শতাধিক পরিবার দূর্ভোগে পড়ার আশংকা রয়েছে। গত কয়েক দিনের অতিবৃষ্টিতে পাউবোর ওই স্লুইচ গেইট আটকে দেওয়ায় জলবদ্ধতাও সৃষ্টি হয়েছিল ওই গ্রামে।

পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দফতর ও পাউবোর বান্দনবানের নির্বাহী প্রকৌশলীর দফতরে দায়েরকৃত লিখিত অভিযোগে রাজাখালীর হোছাইন শহীদ সাইফুল্লাহ মেম্বার উল্লেখ করেছেন, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের মালিকানাধীন রাজাখালী মৌজার নতুন ঘোনা গ্রামে অবস্থিত জমি তাহার প্রদত্ত আম মোক্তারনামামূলে কার্যকারক হিসেবে তিনি দেখভাল করে আসছেন। উক্ত জমিতে লবণ চাষ ও মৎস্য চাষ হয়। উক্ত জমি সংলগ্ন নতুনঘোনা টু সবুজ বাজার এলজিইডি সড়কে অবস্থিত স্লুইচ এর সংলগ্ন সরকারী খাল দিয়ে জমিতে ও এলাকার ১৫০ পরিবারের বাড়ি-ভিটার পানি নিষ্কাশন হয়। কিন্তু মো: হানিফ চৌধুরীর পালিত সন্ত্রাসী নতুন ঘোনার ফজল করিম, মোহাম্মদ ইছহাক, কামাল হোছাইন, আবদুল হামিদ, বামুলা পাড়ার গিয়াস উদ্দিন, পালাকাটার সাহাব উদ্দিন, র নেতৃত্বে একদল লোক স্লুইচ গেইটে ঝিক বসিয়ে স্লুইচ বন্ধ করাসহ সংলগ্ন খালে বাঁধ দিয়ে পানি নিষ্কাশন বন্ধ করার অপতৎপরতায় লিপ্ত রয়েছে।

সাবেক ইউপি সদস্য হোছাইন শহীদ সাইফুল্লাহ ইসলাম বলেন, ‘হানিফ মিয়ার ওই পালিত-লালিত সন্ত্রাসীরা স্লুইচ গেইট বন্ধের মাধ্যমে ও খালে বাঁধ দেওয়ার কারণে পানি নিষ্কাশন বন্ধ করে দিলে আমাদের লবণমাঠ ও মৎস্য ঘোনাসহ এলাকার জনসাধরনের পানি নিষ্কাশন বন্ধ হয়ে গেলে চলতি বর্ষা মৌসুমে জলবদ্ধতার সৃষ্টি হবে।

গত কয়েক দিন পূর্বে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কার্য সহকারী হুমায়ন কবির সরেজমিনে পাউবোর ১০ নং স্লুইচ গেইট দেখতে আসলে তাকে হানিফ মিয়ার লালিত পালিত সন্ত্রাসীরা মারধরের চেষ্টাসহ হুমকি দেন। পাউবোর কর্মচারী হুমায়ন কবির এ ঘটনা পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলীকে অবহিত করেন।

এরপর পানি উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান জোনের নির্বাহী প্রকৌশলীর নির্দেশে পেকুয়ার দায়িত্বপ্রাপ্ত শাখা কর্মকর্তা মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন ও পেকুয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পাউবোর স্লুইচ গেইট দখলের সত্যতা পান। এসময় পাউবোর কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন পাউবোর স্লুইট খুলে দেওয়ার জন্য হানিফ মিয়ার লোকজনকে নির্দেশ দেন এবং পানি আটকে জলবদ্ধতা সৃষ্টি না করার জন্যও তাদের নির্দেশ দেন।

পাউবোর পেকুয়ার দায়িত্ব শাখা কর্মকর্তা মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা ম্বীকার করে বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে নির্বাহী প্রকৌশলীর নির্দেশে রাজাখালীস্থ ১০ নং স্লুইচ গেইট পরিদর্শন করেছেন এবং স্লুইচ গেইট আটকিয়ে কাউকে পানি নিষ্কাশনে বিঘ্ন না করার জন্য কঠোরভাবে বলা হয়েছে। এরপরেও কেউ পাউবোর নির্দেশ অমান্য করলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply