প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা

গত ২১ ও ২৬ সেপ্টেম্বর অনলাইন নিউজ পোর্টাল ভয়েসওয়ার্ড টুয়েন্টিফোর ডটকমে প্রকাশিত’ গুরা মিয়া ডাকতের পুলিশ প্রীতি রহস্য ও গুরা মিয়া ডাকাতের পক্ষে তিন ব্যবসায়ী সমিতি শীর্ষক সংবাদটি আমাদের দৃর্ষ্টি গোচর হয়েছে।

উক্ত সংবাদে আমাকে ডাকত, ছিনতাইকারী ও
ইয়াবা কারবারি হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে উক্ত সংবাদগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও ষড়যন্ত্রমূলক।

মূলত আমি একজন সফল সৈকত কেন্দ্রিক পর্যটন ব্যবসায়ি দীর্ঘ একযুগের বেশি সময় ধরে সুগন্ধা পয়েন্টে জেলা প্রশাসনের অনুমোদিত ভ্রাম্যমাণ কার্ড নিয়ে
পর্যটন ব্যবসায় পরিচালনা করে আসছি। যার মাধ্যমে প্রতি বছর জেলা প্রশাসনের রাজস্ব আয় হচ্ছে।

কিন্তু সম্প্রতি সময়ে একটি কুচক্রী মহল আমার ব্যবসায়ী সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য নানা ভাবে চক্রান্ত করে আসছে। যার ফলস্বরূপ গত ২ দিন ধরে ভয়েসওয়ার্ড টুয়েন্টিফোর ডটকম নামক একটি নিউজ পোর্টালে আমাকে নিয়ে হাস্যকর নিউজ প্রচার করে যাচ্ছে যা সম্পূর্ণ বানোয়াট বিত্তহীন মনগড়া সংবাদ।

আমার সফলতা ও ব্যবসায়িক সুনাম ক্ষুন্ন করতে মূলত একটি অপরাধী চক্র আমার পেছনে উঠে পড়ে লেগেছে।

উক্ত সংবাদে আমার বিরুদ্ধে যে মামলায় বিভিন্ন ধরনের ভিত্তিহীন অভিযোগ আনা হয়েছে। তা মূলত শাক দিয়ে মাছ শিকার করা ছাড়া আর কিছু না।

উক্ত সংবাদে আমার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলার কথা বলা হলেও ঐসব মামলার কোন অভিযোগে আমার সম্পৃক্ততা না থাকায় সবকটি মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয় মহান আদালত থেকে।
তবে আজ থেকে ৩/৪ বছর আগে একটি মারামারি মামলা রয়েছে তাও বর্তমানে আদালত থেকে জামিনে আছি।
এবং আমি উক্ত মামলা নিয়েও আশাবাদী আদালত থেকে আমি খালাস পাব।

আর আমি যেহেতু পর্যটন সংগঠন ভুক্তব্যবসায়ী তাই আমার বিরুদ্ধে যে ধারাবাহিক অপপ্রচার চলছে তা নিয়ে ব্যাবসায়ী সংগঠনের পক্ষে বিবৃতি দিতেই পারে।
আর একজন সাংবাদিক যখন সেটি নিয়েও সংবাদ প্রচার করে তখন এই থেকে স্পষ্টরূপে প্রতীয়মান হয় যে, সংবাদটি জঘন্য মিথ্যাচার ও বানোয়াট এবং উদ্দেশ্য প্রণীত।

এসব সংবাদে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বিভিন্ন সংস্থা ও পর্যটন শিল্পে জড়িত সকল ব্যবসায়ীদের অনুরোধ জানাচ্ছি।
একই সাথে সংবাদমাধ্যমে জড়িত সকল সাংবাদিক ভাইদের প্রতি অনুরোধ করব আপনাদের অধিকার আছে সমাজের অসঙ্গতি নিয়ে অপরাধ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করার।
আমিও চাই আপনাদের লিখনিতে যেন সমাজের প্রকৃত অপরাধীদের মুখোশ উন্মোচন হয়। তবে কেউ যেন কলম সন্ত্রাসের শিকার না হয়।
এবং আপনাদের লিখনিতে যেন কোন পরিবার ছিন্নভিন্ন হয়ে না যায় সেদিকে একটু সুদৃষ্টি দেওয়ার জন্য হাত জোড় করে অনুরোধ করছি।

 

প্রতিবাদকারী
মো: নুরুল হুদা প্রকাশ (গুরা মিয়া) পিতা: আলী আকবর। সৈকত পাড়া, কলাতলী ১২নং ওয়ার্ড কক্সবাজার পৌরসভা।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply