প্রথমবারের মত ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালালো তুরস্ক।

আন্তর্জাতিক ডেস্কতুরস্ক প্রথমবারের মতো সফল ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে। ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রটি সফলভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে বলে জানিয়েছেন তুর্কি শিল্প ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রী মুস্তাফা ভারাঙ্ক। শনিবার এ খবর জানিয়েছে তুর্কি সংবাদ মাধ্যম ইয়েনি শাফাক।

মুস্তাফা ভারাঙ্ক এক টুইট বার্তায় বলেন, টার্কিশ সায়েন্টিফিক অ্যান্ড টেকনোলজিক্যাল রিসার্চ কাউন্সিল (টিইউবিআইটিএকে)-এর ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট (এসএজিই) এ ক্ষেপণাস্ত্রটি তৈরি করেছে। রাষ্ট্রীয় অর্থায়নে পরিচালিত টিইউবিআইটিএকে তুরস্কের শীর্ষস্থানীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিষ্ঠান।

এর আগে বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) পারমাণবিক অস্ত্র বানানোর আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

এরদোগান বলেন, তুরস্কের হাতে বর্তমানে পরমাণু অস্ত্র নেই। কিন্তু নিজস্ব প্রযুক্তিতে এই অস্ত্র বানাতে চাইলেও এতে বাধা দিচ্ছে উন্নত দেশগুলো। তবে তুরস্ক তাদের বাধা মানবে না।

তিনি বলেন, তুরস্ককে নিজস্ব পরমাণু অস্ত্র অর্জনে বাধা দিচ্ছে পারমাণবিক শক্তিধর দেশগুলো, যা অগ্রহণযোগ্য।

এরদোগান বলেন, আমাদের কাছেই ইসরাইল, প্রায় প্রতিবেশী। তারা এই অস্ত্রের মালিক হয়ে অন্য দেশকে আতঙ্কিত করে রেখেছে। কেউ তাদের স্পর্শ করতে পারে না। তাহলে আমরা এ অস্ত্র বানাতে পারবো না কেন?

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, বেশ কয়েকটি দেশের পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে। কিন্তু আমাদের সেটা নেই। আমি এটা মানতে পারছি না। বিশ্বে এমন কোনো উন্নত দেশ নেই, যারা এই অস্ত্রের মালিক না।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply