বদরখালী ভার্চু স্কুল অ্যান্ড কলেজে এএসপি মতিউল ইসলাম


মোজাম্মেল হক, চকরিয়া
সরকার বিরোধী নানা ধরণের গুজব, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন, মাদক নির্মুলে মাধ্যমে সুন্দর সমাজ বির্নিমানের লক্ষ্যে সচেতনতা কর্মসুচির আলোকে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার উপকুলীয় জনপদের বদরখালী ইউনিয়নের শিক্ষা ও উন্নয়ন বঞ্চিত এলাকায় নবপ্রতিষ্ঠিত ভার্চু স্কুল অ্যান্ড কলেজে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসির অংশগ্রহনে শনিবার এক সচেতনতা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন কক্সবাজার জেলা পুলিশের চকরিয়া সার্কেলের জেষ্ঠ্য সহকারি পুলিশ সুপার (এএসপি) কাজী মোহাম্মদ মতিউল ইসলাম। তিনি বলেছেন, বদরখালী ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডসহ একাধিক প্রত্যন্ত এলাকায় প্রায় সময় ইভটিজিং, বাল্য বিয়ে ও মদ-জুয়ার ঘটনার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। এসব অপরাধ রোধে এ ইউনিয়নে কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম আরো জোরদার করা হবে। পাশাপাশি সবধরণের অপরাধ নির্মুলের মাধ্যমে উপকুলীয় জনপদে শান্তির সুবাতাস নিশ্চিত করতে পুলিশের পক্ষথেকে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়া হবে। অপরাধপ্রবণতা বন্ধে পুলিশ কঠোর থেকে কঠোর ভুমিকা পালন করবে। এতে কোন অপশক্তিকে ছাড় দেওয়া হবেনা।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) এ.কে.এম সফিকুল আলম চৌধুরী বলেন, চকরিয়া থানা এবং বদরখালী পুলিশ ফাঁড়িও এসব অপরাধ রোধে সরাসরি ভুমিকা রাখবে। ভার্চু স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ সাংবাদিক মহিউদ্দিন কাদের অদুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, বদরখালী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক মহসিন তালুকদার, স্কুলের শিক্ষক মাস্টার আবু ছিদ্দিক। প্রতিষ্ঠানের কো-অর্ডিনেটর মো. আরিফের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মাদক ও ইভটিজিং বিরোধী ছড়া, কবিতা ও গান পরিবেশন করে স্কুলের শিক্ষার্থী আশফিয়া সোলতানা শিফা, জন্নাতুল ফেরদৌস, জায়নাব আক্তার, পুষ্পা জন্নাত, আবু তাহের, তাশফিয়া জন্নত ছমিরা, রাকিব রায়হান তোফাজ্জল, নাজিয়া ফাতেমা শাঈকা। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় নারী ইউপি সদস্য জাহানারা বেগম, ওমান প্রবাসী নুরুন্নবী জামশেদ ও মো. শহীদুল্লাহ প্রমূখ।##

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply