বরখাস্ত হচ্ছেন বার্সা কোচ, রাজি মেসিও!

বরখাস্ত হচ্ছেন বার্সা কোচ, রাজি মেসিও!

ক্রীড়া ডেস্ক:

বায়ার্নের কাছে ৮-২ গোলের হারের ম্যাচের শেষ মুহূর্তেই দেখা গেছে অসহায় সিসে সেতিয়েনের মুখ। ডাগআউটে টেন্টের সামনে দাঁড়িয়ে দুই হাত ছড়িয়ে দিয়ে উদাস দৃষ্টিতে আকাশের দিকে তাকিয়ে আছেন। তার এই দৃষ্টিই বলে দিচ্ছিল, পরের এক-দুদিনের মধ্যে কি ঘটতে যাচ্ছে এবং বার্সা কোচ হিসেবে সেটাই যে তার শেষবার ডাগআউটে দাঁড়ানো, সেটা প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছেন সেতিয়েন।

৮-২ গোলে হার! এতবড় লজ্জার কথা বার্সার ইতিহাসেই লেখা নেই। বর্তমান প্রজন্ম কেন, কয়েক প্রজন্মেরও মনে নেই। এমন লজ্জা আর অপমান নিয়ে মাঠ ছাড়ার পর কোচ সিসে সেতিয়েনের চাকরি আর থাকছে না, এটা প্রায় সবাই বলে দিচ্ছিল। বিশেষ করে ক্লাবের অধিনায়ক লিওনেল মেসিই যখন পছন্দ করেন না, সেতিয়েনকে- তখন তার আর ন্যু ক্যাম্পে থাকার প্রশ্নই আসে না।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমও এরই মধ্যে খবর প্রকাশ করে দিয়েছেন, মেসিদের হেড কোচ সিসে সেতিয়েনকে বরখাস্ত করা হচ্ছে। এমনকি সেতিয়েনের বরখাস্তের বিষয়ে যে মেসি রাজি, মূখ্য ভুমিকা পালন করছেন, সে খবরও প্রকাশ করেছে ইউরোপিয়ান মিডিয়া। ম্যাচ শেষে সেতিয়েন নিজেও স্বীকার করে নিয়েছেন বার্সায় তার অধ্যায় শেষ হওয়া কেবল সময়ের অপেক্ষা। আনুষ্ঠানিক ঘোষণাই কেবল বাকি।

ইএসপিএনকে বার্সার একটি সূত্র জানিয়েছে, বায়ার্নের বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর আগেই বার্সা কর্মকর্তাদের মধ্যে সিদ্ধান্ত নেয়া ছিল, সিসে সেতিয়েনকে আর না রাখার। তার রিপ্লেসমেন্ট কে হবে, তা নিয়েও আলোচনা চলছিল। কিন্তু বায়ার্নের কাছে ৮-২ গোলে হারের পর এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে এখন আর অপেক্ষা করতে চাইবে না বার্সা।

চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারি আর্নেস্তো ভালভার্দেকে সরিয়ে সিসে সেতিয়েনের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল বার্সার রিমোট কন্ট্রোল। ঠিক সাত মাস বার্সার ডাগ আউটে বসতে পারলেন তিনি। বায়ার্নের কাছে বিধ্বস্ত হওয়ার পরে সেতিয়েনকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বার্সেলোনা, এমন খবর স্প্যানিশ মিডিয়া জানালেও বার্সার পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও কিছু জানানো হয়নি।

বার্সেলোনা প্রেসিডেন্ট হোসে মারিয়া বার্তেম্যু জানিয়েছেন, ‘ক্লাব ম্যানেজমেন্ট ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী সপ্তাহে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হবে। আজকের দিনটা ক্লাবের সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চাওয়ার দিন।’

বায়ার্নের কাছে হারের পরে সংবাদ সম্মেলনে আসেননি অধিনায়ক লিওনেল মেসি। তার পরিবর্তে সংবাদ সম্মেলনে আসেন ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে। বার্সার অন্যতম সিনিয়র এই খেলোয়াড়ে জানালেন, ‘নতুনদের জন্য যদি জায়গা ছাড়তে হয়, তাহলে তিনি সবার আগে ক্লাব ছাড়বেন।’

সেতিয়েন বলেছেন, ‘এটা অত্যন্ত যন্ত্রণার হার।’ তার ভবিষ্যৎ নিয়ে উড়ে আসে প্রশ্ন। সেতিয়েন জবাবে বলেছেন, ‘আমার থাকা না থাকার কথা বলার সময় এটা নয়। এটা আমার ওপর নির্ভরও করছে না। আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তিত নই। সমর্থকদের কথা ভেবে আমার খারাপ লাগছে।’

সবার সামনে কিছু না বললেও সেতিয়েন নিজের দেওয়াললিখন পড়ে ফেলেছেন ইতিমধ্যেই। তাকে সরতেই হবে। তার সময়ে পুরোপুরি শূন্য হাতে মৌসুম শেষ করেছে বার্সা।

সেতিয়েনের পরিবর্তে কে হবেন বার্সা কোচ, সেই তালিকাও উঠে গেছে বার্সার টেবিলে। সাবেক টটেনহ্যাম কোচ মাওরিসিও পচেত্তিনো রয়েছেন সবার আগে। তার সঙ্গে উচ্চারিত হচ্ছে রোনাল্ড কোয়েম্যান এবং বার্সার ঘরের ছেলে জাভি হার্নান্দেজের নামও। জুভেন্টাসের আন্দ্রে পিরলোর মত বার্সাও যদি জাভির হাতে মেসিদের তুলে দেয়, তাহলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply