বাঁশখালীতে পুলিশের গুলিতে ৫ শ্রমিক নিহত ও শতাধিক আহত

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্রের শ্রমিক-পুলিশ-গ্রামবাসী সংঘর্ষেচট্টগ্রামের বাঁশখালীতে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষে ৫ জন নিহত হয়েছেন।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) সকাল ৮টায় গণ্ডামারা ইউনিয়নের পশ্চিম বড়ঘোনা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- গণ্ডামারা ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব বড়ঘোনা মো. আবু ছিদ্দিকের ছেলে আহমেদ রেজা (১৮), একই এলাকার অলি উল্লাহর ছেলে রনি হোসেন (২২), নূর জামানের ছেলে শুভ (২৪) ও মো. দালু মিয়ার ছেলে মো. রাহাত (২২)।

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্রের শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ২৩জন।
সংবাদ সম্প্রসারণ
শনিবার (১৭ এপ্রিল) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের বাঁশখালী মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, বেতন ভাতা নিয়ে শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) থেকে শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এর জেরে সকালে প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠকে বসেন শ্রমিক নেতারা। বৈঠক চলার সময় দাবি-দাওয়া আদায় নিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় পুলিশ গুলি ছুঁড়লে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন। আহত হন অন্তত ২৩ জন। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ ছয় থেকে সাতজনকে চট্টগ্রাম মেডিক্যালে আনা হলে একজনের মৃত্যু হয়। আহত অন্যদের বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে, সংঘর্ষের পর ওই এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিদ্যুৎকেন্দ্র ঘিরে ঘিরে রেখেছে ৩০ থেকে ৩৫ হাজার গ্রামবাসী।
– ডিবিসি ও পূর্বকোণ

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply