বালি উত্তোলনের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে মহেশখালী – চকরিয়া সংযোগ সেতু

 মহেশখালী-চকরিয়া কোহেলিয়া নদীর উপর নির্মিত সংযোগ সেতু যেটি বদরখালী ব্রিজ নামে পরিচিত সেই সেতুর পাশ থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে।

– অথচ বাংলাদেশের ক্ষেত্রে ২০১০ সালের বালুমহাল আইনে বলা আছে, বিপণনের উদ্দেশ্যে কোনো উন্মুক্ত স্থান, চা-বাগানের ছড়া বা নদীর তলদেশ থেকে বালু বা মাটি উত্তোলন করা যাবে না। এ ছাড়া সেতু, কালভার্ট, ড্যাম, ব্যারাজ, বাঁধ, সড়ক, মহাসড়ক, বন, রেললাইন ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সরকারি- বেসরকারি স্থাপনা অথবা আবাসিক এলাকা থেকে বালু ও মাটি উত্তোলন নিষিদ্ধ।

– বালি উত্তোলনের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট আইন থাকলেও আইন মানছে না বালু উত্তোলনকারী ব্যবসায়ীরা। তাদের দাবি তারা সরকার থেকে বালি উত্তোলনের অনুমতি সহ ইজারা নিয়েছেন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, একটি বহুব্যবহৃত সেতুর পাশ থেকে কিভাবে বালি উত্তোলনের জন্য সরকার অনুমতি দেন। এতে করে যেকোনো মুহূর্তে সেতুটি ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে। তাই জনসাধারণের বৃহৎ স্বার্থে এই নদী থেকে বালু উত্তোলন করা দ্রুত বন্ধ করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন সচেতন মহল।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply