ব্যক্তিগত অস্ত্রের লাইসেন্স নিয়ে অন্যের দেহরক্ষী হওয়া যাবে না: স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

নিউজ ডেস্ক:

ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য অস্ত্রের লাইসেন্স নিয়ে কারও দেহরক্ষী হওয়া যাবে না, বেসরকারি সংস্থায় নিরাপত্তাকর্মীর চাকরিতেও সেই লাইসেন্স ব্যবহার করা যাবে না।

বৈধ অস্ত্রের অবৈধ ব্যবহার রোধে এই সংক্রান্ত নীতিমালা স্মরণ করিয়ে দিয়ে সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে লাইসেন্স করা অস্ত্র প্রকাশ্যে প্রদর্শন না করার নির্দেশনাও দেওয়া হয়।

আলোচিত ঠিকাদার জি কে শামীমকে সাত দেহরক্ষীসহ গ্রেপ্তারের ২৪ দিন পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এই নির্দেশনা এল।

গত ২০ সেপ্টেম্বর জিকে শামীম ও তার ৭জন দেহরক্ষীকে গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে মোট আটটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব বলছে, এসব অস্ত্রের সবগুলোই বৈধ এবং এগুলো দেহরক্ষীদের নিজ নিজ নামে লাইসেন্স করা, কোনো প্রতিষ্ঠানের নামে নয়।

আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স প্রদান নীতিমালা অনুযায়ী, কোনো ব্যক্তি দুটির বেশি অস্ত্রের লাইসেন্স কখনোই পেতে পারেন না। আর প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সংখ্যক অস্ত্রের লাইসেন্স দেওয়া হয় প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী প্রধানকে। আর যারা সেই অস্ত্র ব্যবহার করবেন, তাদের জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের সুপারিশের পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে অনাপত্তিপত্র নিতে হয়।

সুত্র: বিডি নিউজ২৪

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply