ভোটে জেতাতে লাখ লাখ টাকার প্রতারণা, হোতাসহ গ্রেপ্তার ২

[ad_1]

সাইদুল ইসলাম বিপ্লব (৩০) ও পলাশ ইসলামকে (২৮) শনিবার রাতে হাজারীবাগ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের পরাজিত প্রার্থী ইয়াসিন মোল্লার কাছে পাঁচ লাখ ও জয়ী আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল কাশেমের কাছে সাত লাখ এবং পাশের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের পরাজিত প্রার্থী ডেইজী সারওয়ারের কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় তারা।

সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ওসির মোবাইল নম্বর স্পুফিং করে যোগাযোগ করে পরে নিজেই ম্যাজিস্ট্রেট সেজে ভোটে জেতানোর জন্য পরিপূর্ণ সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে সাইদুল ইসলাম বিপ্লব এই প্রতারণা করে। অন্যজন তাকে সহযোগিতা করে। এ ঘটনায় আদাবর ও মোহাম্মদপুর থানায় তিনটি মামলা হয়েছে।

“এই চক্রটি ধরতে ফেনী, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, লক্ষ্মীপুরে অভিযান চালানো হয়। পরে এই দুজনকে হাজারীবাগ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।”

ডিসি বিপ্লব বলেন, গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্ট সক্রিয় ২৯টি মোবাইল সিম, চারটি মোবাইল ফোন, নগদ ৪০ হাজার টাকা, ১২০০ ডলার ও একটি পাসপোর্ট পাওয়া গেছে।

২০১৭ সাল থেকে মোট ৮১১ জনের পরিচয় ব্যবহার করে বিপ্লব পুলিশ কর্মকর্তা ও সচিবসহ প্রভাবশালী ব্যক্তিদের মোবাইল নম্বর স্পুফিং করে বিপ্লব লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে এ পুলিশ কর্মকর্তা জানান।

ভোটে জিততে প্রার্থীদের অসদুপায় অবলম্বনের বিষয়টি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে উপকমিশনার বলেন, “বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে জানানো হয়েছে। তাদের নির্দেশনা পাওয়া গেলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”



[ad_2]

Source link

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply