মহেশখালীতে চলমান মেগাপ্রকল্পে নিরাপত্তা নিশ্চিতে রয়েছে সরকারের প্রখর নজরদারি।

উপকূলীয় প্রতিনিধি

মহেশখালীতে চলমান বিভিন্ন মেগা প্রকল্পের নিরাপত্তা নিশ্চিতে সরকার বিশেষ নজরদারি করছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
তিনি বলেছেন, মহেশখালীতে বাস্তবায়নাধীন মেগা প্রকল্প গুলোর নিরাপত্তা নিয়ে নানা সুবিধা- অসুবিধার বিষয়টি জেনে নেয়া হয়েছে। প্রকল্পের সবকিছু যেন সুষ্ঠু ও নিরাপত্তাধীন থাকে সে বিষয়ে সরকারের প্রখর দৃষ্টি রয়েছে। গোটা কক্সবাজার জেলা সম্পূর্ণ নিরাপদ রাখতে সচেষ্ট ভুমিকা রাখছে প্রশাসন ও গোয়েন্দা বিভাগ।
২৮ সেপ্টেম্বর সারাদিন মহেশখালীর নির্মাণাধীন প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। এ সময় আইনশৃংখলা বাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় হেলিকপ্টারযোগে মাতারবাড়ীর প্রকল্প এলাকায় পৌঁছেন। এরপর গভীর সমুদ্র বন্দর ও কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ও নিরাপত্তা নিয়ে আইনশৃংখলা বাহিনীসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিয়ে মতবিনিময় করেন।

মন্ত্রীর সফরসঙ্গী মন্ত্রীপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজির আহমেদ, বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. শাফিনুল ইসলাম, সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আনিছুর রহমান, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান এবিএম আজাদ, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. হাবিবুর রহমান, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি (স্পেশাল ব্রাঞ্চ) মো. মনিরুল ইসলাম, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. কামরুল হাসান, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. আনোয়ার হোসেন, পেট্রো বাংলার চেয়ারম্যান এবিএম আবদুল ফাত্তাহ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল শাহজাহান, কোস্টগার্ডের উপ-পরিচালক কমান্ডার এনামুল হক,চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের এডমিন এন্ড প্ল্যানিং এর সদস্য ও যুগ্ম-সচিব জাফর আলম, অতিরিক্ত সচিব (পুলিশ) জাহাঙ্গীর আলম, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহফুজর রহমান ও স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ।

 

সাইফুল

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply