মহেশখালীতে সন্ত্রাসীদের কোপে স্কুল ছাত্রী আহত

আমিনুল হক (মহেশখালী) : মহেশখালীর কালারমারছড়ায় সন্ত্রাসীদের দায়ের কোপে আফ্রিদা আমান তুশি নামের এক স্কুল ছাত্রী নির্মম ভাবে আহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। সূত্রে জানা যায়, কালারমারছড়া মিজ্জির পাড়া ছড়ার লামার লোকমান’র পরিবার ও আমান উল্লাহ’র পরিবারের মধ্যে বাড়ির সীমানাকে কেন্দ্র করে ২৯ সেপ্টেম্বর রবিবার সন্ধ্যায় লোকমানের পুত্র মোস্তফার নেতৃত্বে আমান উল্লাহ’র বাড়িতে হামলা চালানো হয়। এসময় সন্ত্রাসীরা আমানের স্কুল পড়ুয়া মেয়ে আফ্রিদা আমান তুশির মাথায় দায়ের কোপ দিয়ে তাকে মারাত্মক রক্তাক্ত জখম করে। তার মাথা থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। এলাকাবাসী রক্তাক্ত অবস্থায় তুশিকে উদ্ধার করে। তুশি কালারমারছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী বলে জানা গেছে। এব্যাপারে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, ঘটনাটির ব্যাপারে শুনেছি। সাথে সাথে কালারমারছড়া পুলিশ ফাঁড়িকে বিষয়টি দেখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এজাহার জমা দেয়নি। এজাহার পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন থানার অফিসার ইনচার্জ প্রভাষ চন্দ্র ধর। এব্যাপারে এলাকাবাসী জানান যে, একজন স্কুল পড়ুয়া ছোট্ট মেয়ে, তার কি অপরাধ? তাকে কেন এভাবে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করা হলো?

তারা এব্যাপারে প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন। মহেশখালীর সচেতন ছাত্র সমাজ এ হামলার জন্য দোষীদের চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জামিরুল ইসলাম ও থানার অফিসার ইনচার্জ প্রভাষ চন্দ্র ধরের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply