মহেশখালীর চরপাড়ার আলোচিত ঘটনার তদন্তে থানা পুলিশ

মহেশখালী প্রতিনিধিঃ

এক কলেজ ছাত্রীর করা মামলার সত্যতার বিষয়ে পক্ষে বিপক্ষের ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে। তবে পুলিশ জানিয়েছেন, ঐ মামলাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে। শীঘ্রই মূল রহস্য উদঘাটন করা হবে।

মামলার বাদী কর্তৃক দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ১৯ এপ্রিল মহেশখালী পৌরসভার চরপাড়া লিডারশীপ কলেজ এলাকায় স্থানীয় তিন যুবক থাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এই অভিযোগে মেয়েটি থানায় মামলা করে।

অপরদিকে চরপাড়া এলাকার লোকজন জানান-
১৯ এপ্রিল রাতে ঐ মেয়েটিকে মহেশখালী কলেজের শিক্ষক রানার সাথে অপ্রীতিকর অবস্থায় মুসল্লি ও এলাকাবাসী আটক করে। এই বিষয়ে এলাকাবাসী মহেশখালী কলেজের অধ্যক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগ দেয়। মূলত কলেজ শিক্ষকের সাথে ধরাপড়ার ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে উল্টো এলাকার তিন যুবকের বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করেছে মেয়েটি।

এদিকে এলাকাবাসীর অভিযোগ আমলে নিয়ে ঘটনা তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হচ্ছে বলে কলেজের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহফুজুর রহমান নিশ্চিত করেন।

মহেশখালী থানার ওসি মোঃ আবদুল হাই জানান, মেয়েটির অভিযোগ আমলে নিয়ে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে এএসপি সার্কেল সহ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করা হয়েছে। শীঘ্রই মূল ঘটনা উদঘাটন করা হবে।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply