মামলায় আটকে গেল ধলঘাটার ইউপি নির্বাচন

ধলঘাটা ইউপি নির্বাচন ১১ এপ্রিল হচ্ছে না। ইউনিয়নটির ওয়ার্ড পুনবিন্যাস নিয়ে উচ্চ আদালতে বর্তমান চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম একটি রীট পিটিশন দায়ের করলে আদালত শুনানী শেষে বিবাদীদের বিরুদ্ধে রুল জারি করেন। ৬০ দিনের মধ্যে একটি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশনা দেন মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে।

মামলায় আটকে গেল মহেশখালীর ধলঘাটার ইউপি নির্বাচন। স্থানীয় চেয়ারম্যান কামরুল হাসান ইউনিয়নটির ৩ ওয়ার্ড প্রায় বিলুপ্ত, ৪ ও ৮ নং ওয়ার্ড আংশিক বিলুপ্ত হওয়ায় ইউনিয়নের ওয়ার্ডসমুহ পুনবিন্যাস করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে একটি রীট পিটিশন দায়ের করেন।
বিচারপতি মোহাম্মদ খাইরুজ্জামান ও বিচারপতি মোহাম্মদ হোসেন তালুকদারকে নিয়ে গঠিত ব্যাঞ্চ শুনানী শেষে বিবাদীদের বিরুদ্ধে রুল জারি করে আদেশ গ্রহনের ২ মাসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশ দেন। বাদীর আইনজীবী এ্যডভোকেট সেলিনা আকতার চৌধুরীর প্রত্যয়ন পত্রের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply