মার্কিন নৌ ঘাঁটিতে হামলাকারী সৌদি বিমান বাহিনীর কর্মকর্তা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

গতকাল শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার একটি নৌ ঘাঁটিতে বন্দুকধারীর হামলায় তিন জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। পরে নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে বন্দুকধারীও নিহত হয়েছেন। হামলার ঘটনার পর তদন্ত কর্মকর্তারা হামলাকারীকে শনাক্ত করেছেন। ওই হামলাকারী সৌদি আরবের বিমান বাহিনীর সদস্য। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে উড়োজাহাজ প্রশিক্ষণে ছিলেন। খবর এবিসি নিউজের।

নৌ ঘাঁটিতে হামলাকারী সৌদি বিমান বাহিনীর কর্মকর্তার নাম মোহাম্মদ আল শামরানি। হামলাটি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড কি না সে বিষয়ে তদন্ত করছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এই ঘটনার মাধ্যমে তিন দিনের ব্যবধানে দুটি মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটল। মাত্র দুই দিন আগে দেশটির হাওয়াইয়ের ঐতিহাসিক পার্ল হারবারে বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটে। সেসময় এক নাবিকের গুলিতে দুই বেসামরিক লোক নিহত হন। পরে নিরাপ্তারক্ষীদের গুলিতে হামলাকারী নাবিক নিহত হন।

ফ্লোরিডার এসকাম্বিয়া কাউন্টির শেরিফ ডেভিড মরগান  জানান, স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে পেনসাকোলা নেভাল এয়ার স্টেশনে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এতে তিন জন নিহত হয়েছেন। তার কয়েক মিনিট পর হামলাকারী নিহত হয়।

এ ঘটনায় শেরিফের দুই ডেপুটি আহত হয়েছেন। তাদের একজন বাহুতে, অন্যজন হাঁটুতে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তবে দুজনই আশঙ্কামুক্ত বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। গোলাগুলিতে আহত আটজনকে ব্যাপটিস্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে ওই হাসপাতালের মুখপাত্র জানিয়েছেন।

আলাবামা রাজ্যের সীমান্তবর্তী ফ্লোরিডার এই ঘাঁটি যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর প্রধান প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোর একটি। মার্কিন নৌবাহিনীর অ্যারোবেটিক ফ্লাইট ডেমোনস্ট্রেশন স্কয়াড্রন ‘দ্য ব্লু অ্যাঞ্জেলস’র কার্যক্রমও এই ঘাঁটিতে। এই ঘাঁটিতে ১৬ হাজারের বেশি সামরিক এবং ৭ হাজার ৪০০ বেসামরিক কর্মী নিয়োজিত আছেন।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply