যে টেলিমেডিসিন অ্যাপের সেবা পৌঁছে গেছে সারাদেশে – bdnews24.com

[ad_1]

seekmed
নামের টেলিমেডিসিন অ্যাপটি বাংলাদেশের চিকিৎসাক্ষেত্রে নিয়ে এসেছে এই যুগান্তকারী সুবিধা।
দেশে বসেই ভারতীয় বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ পাওয়া যায় বিধায় বাংলাদেশে প্রায় প্রতিদিনই
বাড়ছে অ্যাপটির জনপ্রিয়তা। 

দেশজুড়ে মানুষ seekmed
-এর মাধ্যমে নিচ্ছেন ভারতীয় ডাক্তারদের
পরামর্শ এবং হচ্ছেন উপকৃত। সেরকমই একজন অনিরুদ্ধ সুর, কাজ করছেন রাজধানী লেকশোর হোটেলের
বিক্রয় ও বিপণন শাখার উর্ধ্বতন কর্মকর্তা হিসেবে।

seekmed
সম্পর্কে তাঁর মন্তব্য, “মাত্র ১২০০ টাকাতেই আমি পাচ্ছি ভারতের প্রখ্যাত সব বিশেষজ্ঞ
ডাক্তারদের পরামর্শ। অবশ্যই বাংলাদেশের মানুষের জন্য এই অ্যাপটি কার্যকর একটি ভূমিকা
পালন করছে ও করবে।”

প্রযুক্তির এই যুগে শুধু আপনার হাতের
স্মার্টফোনটি ব্যবহার করে seekmed অ্যাপটির মাধ্যমেই আপনি পেতে পারেন জরুরি ডাক্তারি
পরামর্শ। অ্যাপটি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যেন সেখানে রোগী তার রিপোর্ট ও অন্যান্য তথ্য
আপলোড করতে পারেন। চিকিৎসকও সেসব রিপোর্ট দেখে তাকে সেভাবেই দেবেন পরামর্শ।

পল্লবী মাজেদুল ইসলাম প্রাইমারি স্কুলের
শিক্ষিকা রাশেদা আক্তার seekmed অ্যাপটির মাধ্যমে হয়েছেন উপকৃত।

তিনি বলেন, “seekmed-এর কথা আমি প্রথম
জানতে পারি আমার ছেলের কাছ থেকে। আমার বর্তমান শারীরিক অবস্থা কি, রিপোর্ট না দেখে
অথবা মুখোমুখি না বসে একজন চিকিৎসক আমাকে কেমন ডাক্তারি পরামর্শ দিতে পারবেন, এ ব্যাপারে
আমি শুরুতে একটু সন্দিহান ছিলাম। কিন্তু পরে আমার সন্দেহ দূর করেছে আমার ছেলে। সে আমাকে
বলেছে যে আমি চাইলেই আমার আগের রিপোর্ট আর অন্যান্য তথ্য আপলোড করতে পারবো। ডাক্তার
তখন সেসব দেখেই আমার রোগ নির্ণয় করবেন কিংবা পরামর্শ দেবেন। এমনটা শোনার পর আমি আশ্বস্ত
হয়েছি।”           

বৈচিত্রময় সব সুবিধা দেওয়ার মাধ্যমে
seekmed
অ্যাপটি চিকিৎসা সেবা নেয়ার ব্যাপারটিকে
করেছে আরও সহজ। seekmed ব্যবহার করে উপকৃত হয়েছেন যারা তাদের মধ্যে আরেকজন, কৃষি ব্যাংকের
ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আমিনুল বাহার।

seekmed প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, “দেশের
বাইরে চিকিৎসা সেবা নেওয়ার খরচটা মোটেও কম নয়। সাথে ভিসা ও পাসপোর্ট নিয়ে তোড়জোড় এবং
মানসিক একটা ঝক্কির ব্যাপার তো থাকেই। ফলে ঘরে বসেই যদি আপনি নিতে পারেন প্রয়োজনীয়
ডাক্তারি পরামর্শ, সেবা নেয়ার ব্যাপারটা হয়ে যায় আরও সহজ।‘ 

seekmed
-এ
আপনি পেমেন্টটাও করতে পারবেন স্বাচ্ছন্দ্যেই।

অ্যাপটির পেমেন্ট পদ্ধতি নিয়ে কথা
বলেছেন খুলনার কম্পিউটার অপারেটর লাক্সম্যান কুমার।

তাঁর মতে, “seekmed-এর পেমেন্ট পদ্ধতিটি
খুবই সহজ।কোনো প্রকার ঝামেলা ছাড়াই আমি বিকাশের মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করেছি।”  

বিদেশি ডাক্তারদের কাছ থেকে চিকিৎসা
সেবা নেওয়া তাই এখন শুধুমাত্র একটি ক্লিকের ব্যাপার। seekmed- অ্যাপের মাধ্যমে এখন
রোগীরা ঘরে বসেই নিতে পারবেন সকল ধরনের মেডিক্যাল পরামর্শ।



[ad_2]

Source link

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply