লবণ নিয়ে গুজব : রাজধানীতে আটক ৯

নাহিদ দেওয়ান,ঢাকা : গুজব ছড়িয়ে বাড়তি দামে লবণ বিক্রি ঠেকাতে মাঠে নেমেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। এরই মধ্য রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক মাইকিং করা হচ্ছে। বেশি দামে লবণ বিক্রি করায় বিভিন্ন এলাকা থেকে এখন পর্যন্ত ৯ বিক্রেতাকে আটকের খবরও পাওয়া গেছে।

আজ মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ডিএমপির বেশ কয়েকটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের (ওসি) সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে। ওসিরা জানান, লবণ সংকট নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়তে শুরু করলে ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার (অপারেশন) মনিরুল ইসলাম ওয়্যারলেসে প্রতিটি থানায় গুজব প্রতিরোধে মাঠে নামতে নির্দেশ দেন। সেই নির্দেশ অনুযায়ী ডিএমপির ৫০টি থানার প্রতিটিতেই পুলিশ সজাগ রয়েছে। মাইকিং, বাজার মনিটরিংসহ বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

জানা গেছে, রাজধানীর মুগদাসহ বেশকিছু থানায় লবণ বিষয়ক গুজব সম্পর্কে সবাইকে সচেতন করতে মাইকিং করছে পুলিশ। বলা হচ্ছে, দেশে লবণের কোনো সংকট নেই। গুজব ছড়িয়ে একটি মহল লবণের দাম বাড়ানোর অপচেষ্টা চলাচ্ছে। এমন গুজবে কাউকে কান না দিতে আহ্বান জানাচ্ছে পুলিশ। এদিকে, বাড়তি দামে লবণ বিক্রি করায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ৯ বিক্রেতাকে আটক করেছে পুলিশ। এর মধ্যে হাজারীবাগ থানায় ৯ জন, মিরপুর পল্লবীতে দুই জন ও উত্তরখান থানা থেকে আরও দুই জনকে আটক করা হয়েছে। দক্ষিণখান থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুল গণি সাবু বলেন, ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলামের নির্দেশ পেয়ে আমরা কাজ শুরু করেছি। লবণ বিক্রেতারা যেন দাম বেশি নিতে না পারে, সেজন্য আমরা কাজ করছি। আমার এলাকায় এখন পর্যন্ত বেশি দামে লবণ বিক্রি করার কোনো ঘটনা পাইনি। তবে কেউ অভিযোগ জানালে আমরা তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা নেব।

এদিকে, রাজধানীর কিছু কিছু এলাকায় বাড়তি দামে লবণ বিক্রিসহ লবণের সংকটও দেখা গেছে। গেন্ডারিয়ার সতীশ সরকার রোডে মুদি দোকানগুলোতে প্রতিকেজি লবণ একশ টাকা পর্যন্ত দামে বিক্রি হয়েছে বলে জানা গেছে। স্থানীয় বাসিন্দা শারমিন সুলতানা সারাবাংলাকে জানান, দুপুরের পর থেকে এলাকায় লবণের দাম বেড়েছে বলে জানতে পারি। এসময় কোনো কোনো দোকানে একশ টাকা করেও লবণ বিক্রি হয়েছে। এলাকার বেশিরভাগ দোকানেই লবণ নেই। শেওড়াপাড়ার বাসিন্দা স্বপন জানান, লবণ কিনতে বের হয়ে আট থেকে ১০টি দোকানে ঘুরলেও কোনোটিতেই লবণ পাননি তিনি। পরে কাজীপাড়ার একটি দোকান থেকে ৬০ টাকা দিয়ে এককেজি লবণ কেনেন তিনি।  জানা গেছে, রাজধানীর কারওয়ান বাজারে স্বাভাবিক দামেই লবণ বিক্রি হয়েছে মঙ্গলবার। তবে দুপুরের পর থেকে হু হু করে বাড়তে থাকে লবণ বিক্রির পরিমাণ। এসময় কাউকে কাউকে ৫ থেকে ১০ কেজি পর্যন্ত লবণ কিনতে দেখা গেছে। এ কারণে বিকেলের পর থেকে প্রায় সব দোকানেই লবণের স্টক শেষ হয়ে গেছে।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply