সিনেমা স্টাইলে স্বর্ণালঙ্কার লুট, সদর থানায় এজাহার দায়ের

সিবিএল২৪ ডেস্ক :
কক্সবাজার সদরের ভারুয়াখালী ইউনিয়নের বাজার পাড়া এলাকায় চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা নব বধূর স্বর্ণালঙ্কারসহ মূল্যবান জিনিস লুট ও মারধরের ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার গত (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সদর উপজেলার ভারুয়াখালী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের পশ্চিম পাড়া এলাকার এই ঘটনা ঘটে।

এঘটনায় সদর থানায় একটি এজাহার জমা দেওয়া হয়েছে।

সূত্রে জানা যায়, গত (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে মৃত সিরাজুল হকের পুত্র মো: আব্দুল মতলব ও তার ভাতিজা আব্দু রহিমের পুত্র তোফায়েলকে নিয়ে ছোট বোনের হবু বরের বাড়ি থেকে এনগেজমেন্টের ২ ভরি ওজনের স্বর্ণ, বিবাহের শাড়ী, কসমেটিক সামগ্রী ও দুইটি মোবাইলসহ বিভিন্ন মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে ভারুয়াখালী বাজারস্থ টমটম স্টেশনে পৌঁছালে।

পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সাবেক পাড়া এলাকার মনিউল হক নাদুর পুত্র মোঃ জাবেদ (৩০), জাহেদ (২৭) ও মৃত মো: নুরুল হকের পুত্র মনছুর (২৭),মনি আলম (৩৩) এবং মো: ইউছুপ (৪০)সহ আরও কয়েকজনে মিলে মারাত্মক
অস্ত্র নিয়ে আব্দুল মতলব ও তোফায়েলের পথের গতিরোধ করে।

তাদেরকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে জিম্মি করে শত শত মানুষের সামনে সিনেমা স্টাইলে তাদের সাথে থাকা বিবাহের মালামাল কেড়ে নিয়ে আসামীরা বীরদর্পে চলে যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আসামীরা প্রকৃতপক্ষে সন্ত্রাসী টাইপের। তারা দেশের কোন আইনকানুন মানে না। তাদের সবার নামে থানায় একাধিক মামলা ও অভিযোগ রয়েছে। তাদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

অভিযোগকারী আব্দুল মতলব বলেন,আমার ছোট বোনের হবু বরের বাড়ী থেকে এনগেজমেন্টের জিনিস পত্র নিয়ে আমার ভাতিজাসহ বাড়ীতে যাওয়ার পথে বাজারপাড়া টমটম স্টেশনে পৌঁছামাত্র উপরোক্ত আসামীরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মানুষের সামনে আমাদের সাথে থাকা বিয়ের মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়।

তিনি আরো জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

এসময় তিনি অভিযুক্তদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে লুট করা মালামাল উদ্ধার করার দাবী জানান।

এবিষয়ে জানতে চাইলে সদর মডেল থানার (ওসি) শেখ মুনীরুল গিয়াস জানান,এঘটনার একটি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগটি যাচাই করে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ হচ্ছে বলে জানান।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply