সিরিয়ায় বন্দি শিবির থেকে পালানো আইএস সদস্যদের মধ্যে আছে বাংলাদেশিও

অনলাইন ডেস্ক:

উত্তর সিরিয়ায় তুরস্কের সেনা অভিযানের ফলে সেখানকার একটি শিবিরে থাকা কয়েকশ সন্দেহভাজন ইসলামিক স্টেট ও তাদের পরিবারের সদস্য পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন কুর্দিশ কর্মকর্তারা।

উত্তর সিরিয়ায় তুরস্কের সেনা অভিযানের ফলে সেখানকার একটি শিবিরে থাকা কয়েকশ সন্দেহভাজন ইসলামিক স্টেট ও তাদের পরিবারের সদস্য পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন কুর্দিশ কর্মকর্তারা।

এনি ইসা ক্যাম্প নামের শিবিরের উপ প্রধান জেলাল আয়াফ বলেন ধারনা করা হচ্ছে ৮৫০ জন বিদেশী এই শিবির থেকে পালিয়ে যান, যাদের সঙ্গে আইএসের যোগাযোগ ছিলো। ধারণা করা হয় তারা ব্রিটেন, আয়ারল্যান্ড, রাশিয়া, পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও ভারতের নাগরিক।

উত্তর সিরিয়া থেকে কুর্দি বাহিনীকে হঠানোর লক্ষ্যে গত বুধবার থেকে তুরস্ক ঐ স্থানে তাদের দীর্ঘ সময় ধরে করা পরিকল্পনা অনুযায়ী অভিযান পরিচালনা শুরু করেন। তবে পশ্চিতা মিত্ররা এই অভিযানকে বলছেন মুলত আইএস বিরোধী অভিযান।

হোয়াইট হাউজের তরফ থেকে যুক্তরাষ্ট্র ঐ অঞ্চল থেকে সেনা প্রত্যাহারের আকশ্মিক ঘোষনা দেয়ার পর পরই তুরস্ক সেখানে সেনা অভিযান শুরু করে।

কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস এর মুখপাত্র মুস্তাফা বালি ভয়েস অব আমেরিকাকে জানান প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প উত্তর সিরিয়া থেকে কয়েক ডজন সেনা প্রত্যাহারের পর সেখানকার মানুষজন হতাশ। কারন যুক্তরাষ্ট্র এসডিএফকে, আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে সহায়তা করে আসছিলো।

তুস্কের ওই অভিযানের কারনে এ লাখেরও বেশী মানূষ স্থানচ্যুত হয়েছে বলে জানান বিশ্ব খাদ্য সংস্থার কর্মকর্তারা।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply