স্ত্রীকে খুন করে সন্দ্বীপে পলাতক, গ্রেফতার স্বামী

খুলশী, চট্টগ্রাম : চট্টগ্রাম মহানগরীর খুলশী থানার ডিজেল কলোনিতে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর সন্দ্বীপে পালিয়ে থাকা স্বামী রেজাউল করিমকে (২৯) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গতকাল শনিবার (৭ ডিসেম্বর) সন্দ্বীপের উড়িরচর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে বাংলানিউজকে জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (বায়েজিদ জোন) পরিত্রান তালুকদার। 

গ্রেফতার রেজাউল করিম সীতাকুণ্ড উপজেলার কুমিরা মসজিদ্দা এলাকার আবুল মনসুরের ছেলে। তিনি পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে সিকিউরিটি হিসেবে চাকরি করেন বলে জানান পরিত্রান তালুকদার।

খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রনব চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী রোজিনা আক্তারকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছিলেন রেজাউল করিম। হত্যার পরে তিনি সন্দ্বীপ পালিয়ে যান।

ওসি প্রনব চৌধুরী বলেন, রেজাউল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে- নিহত রোজিনাও পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে সিকিউরিটি হিসেবে চাকরি করতেন। একই সঙ্গে চাকরির সূত্র ধরে দুই বছর আগে তাদের পরিচয় হয়। ১০ মাস আগে পরিবারের অমতে তারা বিয়ে করেন। পরে ডিজেল কলোনিতে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। ২ মাস আগে থেকে রোজিনার সঙ্গে রেজাউলের পারিবারিক কলহ শুরু হয়। রোজিনা রেজাউলের কথা শুনতেন না এ নিয়ে ক্ষোভ ছিল রেজাউলের মনে। ২ ডিসেম্বর রাতে রোজিনা ঘুমিয়ে পড়লে তাকে কম্বল দিয়ে মুখ চেপে ধরে এবং মাথায় কাচের গ্লাস দিয়ে আঘাত করে হত্যা করেন। পরে হাত-পা বেধে মরদেহ বেডশিট দিয়ে ঢেকে রেখে পালিয়ে যান।

রোববার (৮ ডিসেম্বর) রেজাউল করিমকে আদালতে হাজির করা হবে জানান তিনি।

গত ৩ ডিসেম্বর সকালে ডিজেল কলোনির একটি বাসা থেকে হাত-পা বাধা অবস্থায় রোজিনার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে রোজিনার বোন মনি আক্তার বাদি হয়ে রেজাউল করিমকে আসামি করে খুলশী থানায় মামলা দায়ের করেন। 

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply