‘স্বাদে-ঘ্রাণে অতুলনীয়’ গাইবান্ধার মরিচ – bdnews24.com

[ad_1]

সরেজমিনে না, শ্রুতি নদী-তীরাল চঞ্চল এখন
মাথের পর মাথ মরিচ গা দুলা কাঁচা-পাকা মরিচ। উদ্বেগ বসত সময় পার জে
পরিচর্যা আর মরিচ তোলার কর্ম।

জেলা অঞ্চলের পর্যটন অধিদপ্তরের উপ-পরিবেশন মাসুদুর
রাহমান সাহেব, চঞ্চল মরিচ পরীক্ষা-নিরীক্ষা। ফ্লেভার কখনও ভাল। স্বাদেও
অতুলনীয়। উৎসব গন্ধ বা ঝাল না মরিচ। ”

এই মরিচ শতভাগ দুঃখের বিষয়টা জানিয়েছিলেন তিনি।

কৃষ্ণাঙ্গ বক্তব্য রাখেন, বছর যশোর ১২ টা ১১২ বিঘা
জয়নী মরিচ পর্যবেক্ষকরা ঠিক আছে তবুও শীঘ্রই ছাড়ুন ১২ আগস্ট ঘ৮৭ বিঘা জন্নী
মরিচ দেখা হয়েছে। সাতটি ইউনিয়ন চলমান ফুলছড়ি পরিবেশচর্চা শেষ। পরিবেশ
অন্য ছায়াছবিতে মরিচের পরীক্ষা হয়েছে।

ফুলছড়ি ইউনিয়ন বাঘবাড়িচরিত ৫৫ বছর বয়সী আশরাফ মোল্লা
একজন মরিচ পর্যনী।

আশরাফ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডট কমকে বলেন, মরিচ একটি
কৃষ্ণ ফসল। অল্প খরচে তিনি আট বিঘা জঙ্গি দেশী দের
মরিচ দেখা হয়েছে। মরিচ পর্যবেক্ষক ১৫-১৬ এক হাজার টাকা খরচ হয় খরচ প্রতি বিঘায়
ভাবনা থেকে০ থেকে ৬৫ মণ।

প্রতিবেদন কাঁচা মরিচ ৯৫০ থেকে এক আগস্টে
বিক্রয় করা উচিত তিনি জানান।

আশরাফ বলেছেন, কম্বল্ট পার্শ্ববর্তী পর্বতমালা থেকে ডিসেম্বরের পরিবেশাঘি
চারা ঠাকুর সময়। ফলাফল মাস দু'মাস পর থেকে

অন্যান্য ফসলে সমৃদ্ধ মরিচ পরীক্ষা করা হয়েছে
পর্যালোচনা

খতিয়ামারী শহর গোলাপ হোসেন (৫৩) তিনি বলেন, তিনি প্রায় ছয়
বিঘা জুনে মরিচ পর্যালোচনা। এর মরিচাল পাক পুনরায়। সাপ্তাহে একবার মরিচ আপনি লোকদের।

জল্লাদ ফুলছড়ি হেটেট মরিচ বিক্রয় হয়েছে। সেখান
প্রাণবন্তের পরামর্শদাতা টীকরা এসেছিল

আবার ক্ষেত্র থেকে বেরো

শীতকালীন গোলেনুর রাতম (৪৫) তিনি বলেছেন, মৃ্রিকা বিক্রয় করেছেন
না হয় না। নাম-দামি অনেক প্রতিষ্ঠানের ক্রু প্রতিনিধি
ক্ষেত্র মরিচ এসেছেন। মরিচ স্থান দর্শনকারীদের মেপে ভর্তি টাকা যান।

সাদুল্লাপুর রাতের ধাপেরহাট ইউনিভার্সিটি হাসানপাড়া শহর গ্রামের
আম্মু নাহি (৩৫) বলেছেন, বাইরে বাইরে তিনি এক বিঘা
জয়নিত মরিচ পর্যালোচনা

কাঁচা মরিচা কম দাম পয়সা
তিনি জানান।

সাদুল্লাপুর বৃষ্টি কেন্দ্রের খাজানুর রহমান মরিচ পরীক্ষা
সম্পর্কে তিনি বলেন, বাঁধা মরিচা বীজ রোপণ করুন বা চারা
হয় না। পুনরায় আলোচ্যতা নিয়ন্ত্রন, সামান্য সেচ এবং সার্কিট ফাইল রয়েছে। মূলত
পরিচর্যা করাই আসল কাজ।

[ad_2]

Source link

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply