৩ মাস পর মালেয়শিয়া থেকে বাড়িতে লাশ!

টেকনাফ বাহারছড়া শামলাপুরে তিন মাস পর মালয়েশিয়া হতে লাশ হয়ে ফিরে আসলো আরিফুর রহমান (২৫)নামে এক যুবক।
সে টেকনাফের উপকূলীয় বাহারছড়া শামলাপুর পশ্চিম পাড়ার মোঃ সৈয়দ আলমের পুত্র।
স্থানীয় সূত্রে যানা যায়, অভাব অনটনের ফলে পরিবারে স্বচ্ছলতা ফিরাতে মোঃ আরিফুর রহমান বিগত ২০১৪ সালের দিকে সাগর পথে মালয়েশিয়া পাড়ি দেন। সেখানে দীর্ঘ ছয় বছর বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন কাজ কর্ম করে আসছিলেন। হঠাৎ করে

চলতি বছরের মে মাসের শেষের দিকে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর বুকিট বিন্থাং নামক স্থানে ভাড়াবাসায় রাতে নাকে-মুখে রক্তক্ষরণ এবং হার্টস্ট্রোক করে মৃত্যু বরণ করেন । সে পরিবারের ২ ভাই এবং ৪ বোনের মধ্যে সবার বড়।
এদিকে বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের কারণে বিমান ও যানবাহন যোগাযোগ ব্যাহত হওয়ায় এবং পারিবারিক অর্থনৈতিক দৈন্যদশার কারণে এই যুবকের মৃতদেহ আনতে বিলম্ব ঘটে। পরে স্থানীয় এলাকাবাসীর আন্তরিক সহায়তায় গত ১৯ আগষ্ট সকালে একটি বিশেষ ফ্লাইটে আরিফের মৃতদেহ দেশে আনা হয়।

যাবতীয় প্রশাসনিক কার্য্যক্রম শেষে ২০ আগষ্ট বিকাল ৪টারদিকে তার মৃতদেহ বাড়িতে পৌঁছে । বাদে আছর স্থানীয় গোরস্থানে নামাজে জানাজা শেষে দাফন করা হয়েছে।
এঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

One Response

Leave a Reply