ভূমিখেঁকো থেকে জায়গা উদ্ধার করে শিশুপার্ক স্হাপনের নজির সৃষ্টি করছেনঃ ইউএনও

উপকূলীয় প্রতিনিধি, সিবিএল২৪ঃ
বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন এলজিএসপি প্রকল্পের অধীনে প্রায় দশ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হচ্ছে শিশু বিনোদন পার্ক। আগামীকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৪.০০ টায় উদ্বোধন হবে এই পার্কটি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন মহেশখালী -কুতুবদিয়ার সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক, উপজেলা প্রশাসন কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান,পৌর মেয়র মকছুদ মিয়া এবং ছোট মহেশখালীর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জিহাদ বিন আলী।
শিশুপার্ক উদ্বোধন বিষয়ে ইউএনও’র সাথে ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি কক্সবাজার লাইভ২৪ কে জানান, ছোট মহেশখালীর অনুষ্ঠিতব্য শিশুপার্কের পাশাপাশি কুতুবজুমেও কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান এবং শীঘ্রই উপজেলার শাপলাপুর, মাতারবাড়ি ইউনিয়নেও কাজ শুরু করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। উপজেলার প্রথম বিনোদন পার্ক হওয়ায় বাড়তি উত্তেজনা কাজ করছে স্হানীয় বিনোদনপ্রেমীদের মনে। সেইসাথে নতুন প্রজন্মের মনে আলাদা করে জায়গা করে নিবেন ইউএনও মাহফুজুর রহমান এমন ধারণা গোটা মহেশখালীবাসীর।

ভূমিদস্যুদের কবল থেকে ভূমিটি উদ্ধার করে নির্মিত পার্কটির নাম নির্ধারণ হয়েছে শেখ রাসেল শিশু পার্ক। এ নাম নির্ধারণে শিশুদের মনে শেখ রাসেলের আদর্শ ধারণ করে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হবে কচিকাঁচা শিশুরা এমনটা দাবী স্হানীয় এক ব্যাক্তির।

স্থানীয় এমপি আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিকের উৎসাহে এমন নির্মাণ কাজের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নেমেছেন বিনোদনপ্রেমী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাহফুজুর রহমান। সহযোগিতা করছেন স্থানীয় ছোট মহেশখালী ইউনিয়ন পরিষদ।

এ প্রকল্পটির মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো বিনোদন পার্কের সাথে পরিচিত হতে যাচ্ছে মহেশখালীবাসী। সম্ভাবনাময় নতুন এক পর্যটক কেন্দ্র হিসেবে গড়ে উঠছে ৪০ শতক জায়গা জুড়ে শিশুপার্কটি।

স্বীয় প্রকৃতি হারাতে বসা মহেশখালীর বুকে এমন পার্ক স্হাপনা একটু হলেও স্বস্তির আভাস। উপজেলা প্রশাসনের এমন উদ্যোগ নতুন প্রজন্মকে আকৃষ্টের পাশাপাশি পর্যটকদের জন্যও বাড়তি আগ্রহ সৃষ্টি করবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

কপিরাইটঃ সাইফ/কক্সবাজারলাইভ২৪/21

Share the post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply