বাংলাদেশের মাহিন আইফোনের ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ার

সিবিএল২৪ ডেস্কঃ
কয়েকদিন আগে উন্মোচন করা হয়েছে মার্কিন টেকনোজায়ান্ট অ্যাপলের যুগান্তকারী সৃষ্টি আইফোন১৪ সিরিজ। সারা বিশ্বে প্রায় ২০০ কোটি পিস সেলফোন বিক্রি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। আইফোনের চমকপ্রদ নকশা ও প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতা এটিকে দিয়েছে সেলফোনের জগতে শীর্ষ স্থান। বিশ্বখ্যাত এই আইফোনের ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ারিং টিমের সঙ্গে কাজ করছেন বাংলাদেশি মাহিন মাশরুর। মাহিনই একমাত্র বাংলাদেশি যিনি সেখানে প্রোডাক্ট ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করছেন।

মাহিন মাশরুরের জন্ম ঢাকার উত্তরায়, ১৯৯৯ সালে। তিনি যখন উত্তরার ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশন সেন্টারের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র তখন বাবা-মা’র সঙ্গে চলে যান কানাডায়। ২০১৮ সালে মাহিন ভর্তি হন ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষায় কানাডার মর্যাদাপূর্ণ প্রতিষ্ঠান ওয়াটারলু ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টে।

ছোটবেলা থেকেই প্রযুক্তির প্রতি অসম্ভব আকর্ষণ মাহিনের। ওয়াটারলু ইউনিভার্সিটিতে নতুন নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে সম্পৃক্ত থেকে তিনি যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন। এ বছরের প্রথমদিকে যখন তিনি ফাইনাল পরীক্ষা নিয়ে ব্যস্ত, তখন চাকরির জন্য আবেদন করেছিলেন। টেসলা, স্পেসএক্স, অ্যাপলসহ অনেক কানাডিয়ান নামকরা প্রতিষ্ঠান থেকে তিনি সাক্ষাৎকারের ডাক পান। মাহিন তার শেষ বর্ষের পরীক্ষা শেষ করার আগেই সাক্ষাৎকারের চারটি ধাপ অতিক্রম করে অ্যাপলের আইফোন ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে যোগ দেওয়ার সুযোগ পান। গত ১৫ জুলাই তিনি যোগ দিয়েছেন ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাপ পার্কে। আইফোনের পরবর্তী সংস্করণের নকশায় বাংলাদেশের এই তরুণ মেধাবীর সম্পৃক্ততা থাকবে।

মাহিনের পৈতৃক নিবাস গাইবান্ধা জেলা সদরের পলাশ পাড়ায়। বাংলাদেশে তার বাবা মোমিনুল আজম চাকরি করতেন বিসিএস (ডাক) ক্যাডারে আর মা মাহমুদা আনোয়ার বিসিএস (কৃষি) ক্যাডারে। সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে তারা ২০১০ সালে পাড়ি জমান কানাডায়। মাহিনের বড় ভাই মুহিবও কানাডায় মেধার স্বাক্ষর রেখেছেন। মুহিব ইউনিভার্সিটি অব টরন্টোর মেডিকেল স্কুলে পড়ালেখা করছেন।

Leave a Reply